আফ্রিকার প্রথম দেশ হিসাবে রাশিয়া বিশ্বকাপে ‘সুপার ঈগলস’

2,707
gb

রাশিয়া বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা ইতিমধ্যেই অর্জন করে ফেলেছে ব্রাজিল, স্পেন, জার্মানি, ইংল্যান্ডের মতো ফুটবল শক্তিগুলো। ২০১৮ বিশ্বকাপের মহাযজ্ঞ শুরু হতে বাকি আর ২৪৮ দিন ১০ ঘন্টা। বিশ্বকাপে ইতিমধ্যেই যোগ্যতা এবার অফ্রিকা মহাদেশ থেকে প্রথম দেশ হিসেবে যোগ্যতা অর্জন করল নাইজিরিয়া। এই নিয়ে ৬ বার বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করল ‘সুপার ঈগলস’রা।

শনিবার রাতে ঘরের মাঠে ১ পয়েন্ট পেলেই রাশিয়ার টিকিট নিশ্চিত ছিল নাইজিরিয়ার। এই সমীকরণ নিয়ে জাম্বিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল ‘সুপার ইগলস’। ম্যাচের শুরু থেকে ম্যাচের দাপট দেখালেও গোল পোস্টের সামনে গিয়ে কেন যেন খেই হারিয়ে ফেলছিল তারা। বিশেষ করে আব্দু্লাহি দুই অর্ধেই দুটি সুযোগ মিস করেন।

জাম্বিয়াও মাঝে মধ্যে প্রতি-আক্রমণে এসে বিপদে ফেলছিল ‘সুপার ইগল’দের। অগাস্টাইন মুলেঙ্গার গোল অফসাইডের বাতিল না হত তাহলে ২২ মিনিটেই এগিয়ে যেতো পারতো জাম্বিয়া। তবে ম্যাচ যখন নিশ্চিত ড্রয়ের দিকে এগোচ্ছে তখনই জ্বলে ওঠেন আর্সেনাল তারকা অ্যালেক্স লওবি।

৮৫ মিনিটে ডান দিক থেকে ক্রস তোলেন মোজেস। সেই পাস জালে রাখতে ভুল করেননি লওবি।

যোগ্যতা অর্জনের প্রথমে যখন এই গ্রুপ বিন্যাস করা হয়েছিল তখন ভ্রু কুঁচকেছিল অনেক বিশেষজ্ঞের। কারণ আফ্রিকান জোনের গ্রুপ বি-তে নাইজিরিয়ার সঙ্গে ছিল ক্যামেরুন, আলজিরিয়া ও জাম্বিয়া। এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ’ বলাও হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত জাম্বিয়া, ক্যামেরুনের মতো প্রতিপক্ষকে পিছনে ফেলে বাজি মারল ‘সুপার ইগল’রাই।