ফকিরহাটে গ্রামীন অবকাঠামো সংস্কার কর্মসূচি আওতায় প্রত্যান্ত জনপদে ব্যাপক উন্নয়ন

70
gb

ফকিরহাট প্রতিনিধি। |
বাগেরহাটের ফকিরহাটে গ্রামীন অবকাঠামো সংস্কার কর্মসূচি আওতায় কাবিখা ও টিআর ইজিপিপি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রত্যান্ত গ্রামীন জনপদে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস ও স্বঃ স্বঃ এলাকার জনপ্রতিনিধিদের উদ্যোগের করণে এই উন্নয়ন হয়েছে। এধারা অব্যাহত থাকলে সরকারের ২০৪১সালের যে ভিশন তা বাস্তাবায়নে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে বলে অনেকের ধারনা। জানা গেছে, গ্রামীন অবকাঠামো সংস্কার কর্মসূচির কাবিটা ও টিআর প্রকল্পের (ইজিপিপি) এর অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির আওতায় প্রথম পর্যায়ে মোট ১৫টি প্রকল্পের মাধ্যমে ৮টি মাটির রাস্তা নির্মান করা হয়। এছাড়া টিআর এর ৫৭টি প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসা মন্দির স্কুলের মাঠ ছোট বড় কাচা রাস্তা পূনঃ সংস্কার করা হয়েছে। সরেজমিনে অনুসন্ধ্যানে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলা প্রকল্প অফিসের মাধ্যমে ৪০দিনের কর্মসূজন কর্মসূচির আওতায় বেতাগা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে মাসকাটা বিলের মধ্যদিয়ে একটি গ্রাম্যসড়ক নির্মান করা হয়েছে। যে সড়কটি অর্গানিক বেতাগায় গিয়ে মিশেছে। সেই সড়কটির নতুন মাটি দিয়ে এমন ভাবে সংস্কার করা হয়েছে যেটি দেখলে মনে হবে পানি উন্নয়ন বোর্ড মোটা অংকের অর্থ বরাদ্ধ দিয়ে কোন ভেড়ীবাধ নির্মান করেছেন। কিন্তু বাস্তবে ৪০দিনের কর্মসূজন কর্মসূচির শ্রমিকরা এটি নির্মান করেছেন। এছাড়া পিলজংগ ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডেও বৈলতলী ও ৩নং ওয়ার্ডের শ্যামবাগাত মুখ্যাজী বাড়ির সামনে গ্রাম্যরাস্তা পূনঃ সংস্কার করেছে। অল্প বরাদ্ধে এত ভাল কাজ চোখে পড়েনা। এছাড়া মসজিদ মন্দির মাদ্রাসা ও স্কুল কলেজের মাঠ ভরাটে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এধারা অব্যাহত রাখলে সরকারের ২০৪১সালের যে ভিশন তা বাস্তাবায়নে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে বলে অনেকের ধারনা।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More