সাতক্ষীরার আশাশুনিতে স্বামীর ছোড়া এসিডে স্ত্রী ও কন্যা দগ্ধ

26
gb

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় তালাকপ্রাপ্ত স্বামীর ছোড়া এসিডে স্ত্রী ও কন্যা এসিড আক্রান্ত হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। আহত স্ত্রী সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের চাপড়া গ্রামের একরামুল কাদিরের মেয়ে ফাতেমা সুলতানা (২৯) ও মেয়ে জাকিয়া (২)। আশাশুনি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাসানুজ্জামান বলেন, সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে জানতে পারেন চাপড়ার ফাতেমার সারা শরীরে তার তালাক প্রাপ্ত স্বামীর ছোড়া এসিডে স্ত্রী ও কন্যা এসিড আক্রান্ত হয়ে আহত হয়। এখবর পেয়ে আশাশুনি থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আহতদের উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসাপাতালে পাঠান। আক্রান্ত ফাতেমা জানান, তারা স্বামী মাদকাসক্ত ও নির্যাতনকারী হওয়ায় তাদের এক বছর আগে তালাক হয়। এরপর থেকে বাবার বাড়িতে থাকতো ফাতেমা। সোমবার রাতে বাবার বাড়িতে অবস্থানকালে তার স্বামী বাড়ির জানালার কাছে এসে ডাকে এবং সাথে সাথেই এসিড ছুড়ে মারে। এসিড আক্রান্ত হয়ে আহত হয় ফাতেমা ও তার মেয়ে জাকিয়া। মেয়ের চাচা সোহাগ হোসেন জানান, তারা ফাতেমার আর্তচিৎকার শুনে এসিড আক্রমনকারীকে ধরতে ধাওয়া করলেও ফাতেমার স্বামীকে ধরতে ব্যর্থ হয়। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ডা: ইকবাল মাহমুদ জানান, মেয়ের থেকেও মায়ের (ফাতেমা) অবস্থা খারাপ। তার মুখ, চোখ ও বুক থেকে পেটসহ শরীর বিভিন্ন অংশ এসিডে আক্রান্ত হয়েছে। জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসা চলছে। আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুস সালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। ##

gb

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More