কমলগঞ্জে নদীর বাঁধ মেরামত, খনন ও সংস্কার দাবীতে সমাবেশ

266
gb

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা ||
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ধলাই ও কুলাউড়া উপজেলার মনু নদীর ভাঙ্গা বাঁধ মেরামত, লাঘাটা নদীর খনন ও সংষ্কার দাবিতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। হাওর ও নদী রক্ষা আ লিক কমিটি, কমলগঞ্জ এর উদ্যোগে গত সোমবার সন্ধ্যা ৭ টায় পতনউষার ইউনিয়ন পরিষদ সম্মুখে সমাবেশে এসব সমস্যা সমাধানের দাবি জানানো হয়।
হাওর ও নদী রক্ষা আ লিক কমিটি, কমলগঞ্জ এর আহŸায়ক মো. দুরুদ আলীর সভাপতিত্বে ও সামাদ মিয়ার পরিচালনায় সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পতনউষার ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী তওফিক আহমদ বাবু। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হাওর ও নদী রক্ষা আ লিক কমিটির যুগ্ম আহŸায়ক আব্দুল হান্নান চিনু, সদস্য সচিব তোয়াবুর রহমান তবারক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নূরুল মোহাইমীন মিল্টন, হিফজুর রহমান বক্স, আফরোজ আলী প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, ধলাই ও মনু নদীর ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে অকাল ও অমৌসুমে বন্যায় কমলগঞ্জের শমশেরনগর, পতনউষার, মুন্সীবাজার ইউনিয়ন, কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর এবং রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের কৃষকরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। বন্যার পানি নিস্কাশনের একমাত্র পথ কেওলার হাওরের মধ্যদিয়ে প্রবাহিত লাঘাটা নদী দিয়ে মনু নদীতে গিয়ে নিস্কাষিত হয়। লাঘাটা নদী ভরাট ও ঝোপ জঙ্গলে ভরপুর হয়ে উঠায় দ্রæত পানি নিস্কাষিত না হওয়ায় কেওলার হাওর জুড়ে দীর্ঘ জলাবদ্ধতা তৈরী হয়। জলাবদ্ধতায় এলাকার সহ¯্রাধিক কৃষক গত বোরো মৌসুম থেকে বর্তমান আমন মৌসুম পর্যন্ত বন্যায় মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এসব কৃষকদের ফসল রক্ষা ও চাষাবাদের সুবিধার্থে, নদী ও হাওর রক্ষার বৃহত্তর স্বার্থে লাঘাটা নদীর শমশেরনগর অংশ থেকে রাজনগরের কামারচাক পর্যন্ত দ্রæত খনন ও সংষ্কার এবং ধলাই ও মনু নদীর ভাঙ্গা বাঁধ মেরামত এবং ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ক্ষতিপূরণ প্রদান, এনজিও ও ব্যাংক ঋণের সুদ মওকুফ করার জন্য সরকারের নিকট জোর দাবি জানান। এছাড়াও দাবি বাস্তবায়নে তিন সংসদ সদস্য, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপিসহ সভা সমাবেশের কর্মসূচী ঘোষণা করেন সভাপতি দুরুদ আলী।