ঝিনাইদহে বিপণী বিতান গুলোতে হুড়োহুড়ি সামাজিক দুরত্বের বালাই নেই

49
gb

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ

দুই মাস পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দোকানপাট খোলার পর মানুষের যেন হুড়োহুড়ির শেষ নেই। সমাজিক দুরত্ব না মেনে প্রচন্ড ভীড় উপেক্ষা করে মানুষ কেনাকাটায় মত্ত হয়ে পড়েছে। ঝিনাইদহে করোনাকে উপক্ষো করে শহরের বিপণী বিতান গুলোতে রোববার দিনব্যাপী এমন দৃশ্য চোখে পড়েছে। করোনা ভাইরাসের ভয়াল থাবা থেকে মানুষকে রক্ষার জন্য সরকার নিত্যপ্রয়োজনী পণ্যের দোকান ও ঔষধের দোকান ব্যতীত সকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করে। কিন্ত দীর্ঘ প্রায় ২ মাস পর সরকারের নির্দেশে রোববার সকাল থেকে বিপনী বিতান গুলো খুলে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বেচা কেনা করার কথা থাকলেও তা মানছে না কেউ। ক্রেতা কিংবা বিক্রেতাদের হাতে গ্লাবস নেই। নেই মুখে মাস্ক। বিপনীবিতানগুলোতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার বালাই নেই। দীর্ঘ্যদিন বন্ধের পর মনে হচ্ছে তারা মোক্ষম সময় পেয়ে গেছে। হুড়োহুড়ী, ঠেলাঠেলি আর গাদাগাদি করে চলাচল করছে মানুষ। সরকারী ও বেসরকারী ব্যাংকেও রয়েছে মানুষের ঢল। ঝিনাইদহ শহরের কেপি বসু সড়ক গীতাঞ্জলী সড়ক, পোষ্ট অফিস মোড় ও সাপ্তাহীক বাজারে মানুষের কোলাহল ছোখে পড়ার মতো। তবুও ঝিনাইদহের প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে বিপথগামী মানুষকে সচেতনতা কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন