রোহিঙ্গাদের কারণে পাহাড় ও বন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে –সাতক্ষীরায় মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন

397
gb

এম.শাহীন গোলদার,সাতক্ষীরা থেকে ||
বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রি রাশেদ খান মেনন বলেন, মিয়ানমারে জাতিগত নির্যাতন ও গনহত্যার শিকার রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ।
তাদেরকে আশ্রয় না দিলে তা হতো অমানবিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, তবে তাদের আশ্রয় দেওয়ায় স্থানীয়ভাবে কিছু অভিঘাত আসবে। এরই মধ্যে উখিয়া ও টেকনাফ এলাকার জনসংখ্যা অপেক্ষা রোহিঙ্গাদের সংখ্যা বেশি হয়ে দাঁড়িয়েছে।
তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে বাংলাদেশের পর্যটন খাতে কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছে। পাহাড় ও বন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ফলে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও নষ্ট হচ্ছে। সেন্ট মার্টিনে ১ অক্টোবর থেকে পর্যটন মওসুম শুরু হবার কথা থাকলেও তা হয়নি। তিনি বলেন চর জেগে যাওয়ায় নাফ নদী দিয়ে চলাচল করতে হবে। আর তা হবে অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ন। তবে রোহিঙ্গাদের কারণে পর্যটন শিল্পে এখন পর্যন্ত কোনো বিঘœ দেখা দেয়নি বলে উল্লেখ করেন তিনি।
মন্ত্রি শনিবার সাতক্ষীরা সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
রাশেদ খান মেনন বলেন, বিএনপি যে সহায়ক সরকারের কথা বলছে তার কোনো অস্তিত্ব নেই সংবিধানে। সংবিধান অনুযায়ীই একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন বর্তমানে যে সরকার রয়েছে সেই সরকারই সহায়ক সরকার হিসাবে কাজ করবে। রাশেদ খান মেনন আরও বলেন ২০১১ সালের আদম শুমারি অনুযায়ী ২০১৪ এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। নতুন করে আর আদম শুমারি হয়নি। এ অবস্থায় নতুন করে সীমানা নির্ধারনের চেষ্টা করা হলে নানা জটিলতার সৃষ্টি হবে জানিয়ে তিনি বলেন এতে নির্বাচনও খানিকটা বাধাগ্রস্থ হবে।
সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া তার মামলার রায় তড়িঘড়ি করে দেওয়ার যে অভিযোগ তুলেছেন তা খন্ডন করে রাশেদ খান মেনন বলেন তিনি ৫৪ বার তার মামলা স্থগিত করার সুযোগ পেয়েছেন। এমনকি আটমাস মামলা আটকে রেখেছেন। প্রতিটি মামলার ধার্য দিনের মধ্যে সাতদিন সময়ও পাচ্ছেন তিনি। সূতরাং তড়িঘড়ি করে তার মামলার রায় ঘোষনার যে অভিযোগ তিনি তুলেছেন তা যথার্থ নয়।
এরপর ওয়ার্কার্স পার্টি প্রধান রাশেদ খান মেনন বিকালে সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অক্টোবর বিপ্লবের শত বার্ষিক উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন।
সংসদ সদস্য অ্যাভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, অধ্যাপক ড. সুশান্ত দাস, মহিবুল্লাহ মোড়ল প্রমুখ।