আফগানিস্তানে হামলা চলছেই, ২৪ ঘণ্টায় নিহত ১২৮

34
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

দুই পক্ষের শান্তি আলোচনা শুরু হবে হবে করেও হচ্ছে না। এর মধ্যে হামলা চলছেই। আলোচনা বিলম্বিত হওয়ার মধ্যে শনিবার ফের হামলা-পাল্টা হামলা হয়েছে আফগানিস্তানে। এ দিন তিনটি পৃথক হামলায় কমপক্ষে ১৪ নিরাপত্তাকর্মী এবং সেনাবাহিনীর পাল্টা হামলায় ১১৪ তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছেন।

শনিবার উত্তরের টাখার প্রদেশে একটি তল্লাশি চৌকিতে তালেবানের হামলায় অন্তত নয় জন নিরাপত্তাকর্মী নিহত হয়েছেন। আহত একজন। প্রাদেশিক পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

এ ছাড়া উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ বাদাখশানে তালেবানের হামলায় আরও চার নিরাপত্তাকর্মী নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রাদেশিক সরকারের একজন মুখপাত্র।

দেশটির রাজধানী কাবুল নগর পুলিশের মুখপাত্র জানিয়েছেন শনিবার কাবুলে একটি ম্যাগনেটিক বোমা বিস্ফোরণ হয়েছে। তাতে প্রাণ হারিয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীর একজন সদস্য। এ ছাড়া আহত হয়েছেন একজন বেসামিরক নাগরিকসহ চার জন। তবে ওই হামলার দায় তালেবান স্বীকার করেনি।

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে রাজধানী কাবুলে এমন বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে নিরাপত্তা বাহিনীর বাহনগুলো লক্ষ্য করে নিয়মিতই এসব হামলা চালানো হচ্ছে।

এদিকে গতকাল শুক্রবার আফগান ন্যাশনাল আর্মি (এএনএ) এক বিবৃতি দিয়ে জানায়, বিগত ২৪ ঘণ্টায় আকাশ ও ভূমি থেকে চালানো তাদের অভিযানে তালেবানের কমপক্ষে ১১৪ জন যোদ্ধা নিহত হয়েছেন।

ফলে বন্দিমুক্তি নিয়ে যেসব আলোচনা চলছিল বা যতটা অগ্রগতি দেখা দিয়েছিল, তা আরও বিলম্বিত হচ্ছে। এতে করে আফগানিস্তানের সরকার পক্ষের সঙ্গে তালেবানের শান্তি আলোচনা যে আরও বিলম্বিত হবে তা অনুমেয়।

অবশ্য তালেবানের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে, বাকি তালেবান বন্দিদের মুক্ত করে না দেওয়া পর্যন্ত সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের শান্তি আলোচনা শুরু করবে না তারা।

কাবুল সরকার তাদের হাতে বন্দি প্রায় ৪০০ তালেবান যোদ্ধার মধ্যে ৮০ জনকে সম্প্রতি মুক্তি দিয়েছে। গত ৯ আগস্ট দেশটির ঐতিহ্যবাহী সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী পরিষদ থেকে এসব বন্দি মুক্তির অনুমোদন দেওয়া হয়।

প্রাথমিক বন্দিমুক্তির পর অস্ট্রেলিয়া এবং ফ্রান্স আনুষ্ঠানিকভাবে কাবুল সরকারকে জানিয়েছে যে, তাদের দেশের নাগরিক হত্যার সঙ্গে জড়িত তালেবান বন্দিদের যেন মুক্তি না দেওয়া হয়। আফগান কর্তৃপক্ষ অবশ্য বলছে, দেশ দুটির সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছানোর জন্য সরকার কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, কাবুল সরকার ইতোমধ্যে ৪ হাজার ৬৮০ জন তালেবান বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে। এদিকে সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, গত ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে করা চুক্তির শর্ত রক্ষা করে তারা ইতোমধ্যে সরকার সমর্থিত এক হাজার বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি তালেবানকে তাদের অস্ত্র নামিয়ে রেখে প্রস্তাবিত আন্তঃআফগান শান্তি আলোচনা শুরু করার আহ্বান জানান।