বিয়ে পিছিয়ে দিয়ে ‘করোনাযুদ্ধে’ নামলেন নারী চিকিৎসক সাফি

52
gb
5

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

বাঁচার তাগিদে লড়ছে সবাই। চীনের অভিশপ্ত উহানে উৎপক্তি হওয়া ভাইরাসটির গতি-প‌্রকৃতিও হেঁয়ালি-উদাসীন। কোনো স্থির চরিত্র নেই যেনো। সর্বত্র যুদ্ধ যুদ্ধ অবস্থা। সকলে তৈরি হচ্ছে যুদ্ধ জয়ের তাগিদে। করোনা আতঙ্কে কাঁপছে পুরো বিশ্ব। ভারতেও আক্রান্ত হয়েছেন কয়েকশ মানুষ। এমন অবস্থায় গত রোববার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল কেরালার কুন্নুরে কর্মরত চিকিৎসক সাফি মোহাম্মেদের। কিন্তু করোনা রোগীদের সেবা করার জন্যই বিয়েটা পিছিয়ে চিকিৎসা সেবায় নেমে পড়েন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসর প্রতিবেদনে বলা হয়, দুবাইয়ের এক ব্যবস্যায়ীর সঙ্গে হতো বোববার কেরালার চিকিৎসক সাফি মোহাম্মেদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি সেই বিয়ের দিন পিছিয়ে দেন। কারণ, দেশের এই পরিস্থিতির মধ্যে বিয়ে করা মানে তার কাছে বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। তাই বিয়েটা পিছিয়ে পুরো দিনটাই কাটালেন হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে।

ওই দিন সাফির হবু স্বামীও বিয়ের জন্য তৈরি ছিলেন। কিন্তু কনে বলে দিলেন, এখন বিয়ে হবে না। আগে দেশের অবস্থা ভালো হোক। আপাতত চিকিৎসক হিসেবে কাজ করতে চান তিনি।

তবে এই নিয়ে বিশেষ কথা বলতে চান না সাফি। তিনি বলেন, ‘দেখুন বিয়ের জন্য অপেক্ষা করা যায়, অসুস্থ হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি, তারা অপেক্ষা করতে পারবেন না। তাই আমি আমার কর্তব্য পালন করছিমাত্র। এর বাইরে কিছুই নয়। এটা নিযে এত আলোচনার কোনো প্রয়োজন নেই। ’

রোববার বিয়ের পোশাকে থাকার কথা ছিল তার। কিন্তু সেদিনই তিনি হাসপাতালে পরে আছেন পিপিই। সাফি বললেন, ‘‌বন্ধুরা এই নিয়ে ইয়ারকি মারছে। বাড়ির লোকেরাও হাসি ঠাট্টা করছে। কিন্তু সবার মানসিক সমর্থন ছাড়া আমি এই সিদ্ধান্ত নিতে পারতাম না। মা-বাবা, আমার কথায় একবারে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন। আমার হবু স্বামীও রাজি হয়েছেন একবারেই। আমি তাদের কাছেও কৃতজ্ঞ।’

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২শ জন। এর মধ্যে ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে ।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন