রাজনগরে সৎ বাবা ধর্ষণ করলো কিশোরীকে !

161
gb

জিবি নিউজ।।

রাজনগরে সৎ বাবার লালসার শিকার হয়েছে ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরী। মেয়েটির সহজ-সরল প্রকৃতির হওয়ার সুযোগে সৎ বাবা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন কিশোরীর মা।
পুলিশ ও মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার কামালবাজার এলাকার হাজী সোলেমান আলীর সাথে ১৬ বছর আগে বিয়ে হয় গোয়াইনঘাট উপজেলার টেকনাগুল এলাকার আফরোজা বেগমের (৩৫)। সোলেমান আলীর সংসারে তাদের এক মেয়ে সন্তানের জন্ম হয়। প্রথম স্বামী সোলেমানের আকষ্মিক মৃত্যুর পর আফরোজা বেগম গত ৫ বছর আগে রাজনগর উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের সুপ্রাকান্দি গ্রামের তাবির আলীর ছেলে রাসেল আহমদের সাথে দ্বিতীয়বার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এই সংসারে আফরোজা এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের জন্ম দেন।
আরো জানা যায়, ২ মাস আগে রাসেল তার স্ত্রী আফরোজাকে মারপিট করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। তবে রাসেল তার ওই সৎ মেয়েটিকে বাড়িতে রেখে দেয়। পরে মেয়েটির মা পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে গোয়াইনঘাটে নিয়ে যান।
সম্প্রতি মেয়েটি তার মাকে জানায়, সুপ্রাকান্দি গ্রামে থাকাকালে গত ২ মাস ধরে সৎ বাবা রাসেল আহমদ একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করেছে। এঘটনা জেনে আফরোজা তাৎক্ষনিক তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টারে ভর্তি করেন। এঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে রাসেল আহমদকে আসামী করে রাজনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।
এব্যাপারে রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. আবুল কালাম বৃহস্পতিবার রাতে এ প্রতিবেদককে বলেন, মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে। মামলা (নং-০৭, তাং-১৬/১০/২০১৯)।
মেয়েটির সৎ বাবাকে আসামী করে মামলা হয়েছে। ওসিসি’র মাধ্যমেও ধর্ষনের বিষয়টি আমরা জেনেছি। আসামীকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
পিতা নামধারী ওই ধর্ষক উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের সুপ্রাকান্দি গ্রামের রাসেল আহমদ (৩৫)। কিশোরীর মায়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার ১৬ অক্টোবর বিকেলে রাজনগর থানা পুলিশ ওই সৎ বাবা রাসেল আহমদকে সুপ্রাকান্দি গ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন