থানায় বসবেন ডিসিরা, ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশ

168
gb

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪ ||

থানা পুলিশের হয়রানিমুক্ত সেবা নিশ্চিত করতে উপ-পুলিশ কমিশনারদের থানায় বসার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) নবনিযুক্ত কমিশনার শফিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম এক নির্দেশনায় (চিঠি) ঢাকা মেট্রোপলিটনের অপরাধ বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারদের (ডিসি) এ নির্দেশ দেন।                              এ দিন সন্ধ্যায় ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশমূলক ওই চিঠির বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঢাকা মহানগরের একাধিক ডিসি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ডিসি বলেন, থানায় হয়রানি এড়াতে সপ্তাহে ২-৩ ঘণ্টা আমাদের নিজস্ব বিভাগের থানাগুলোতে সময় দেওয়ার নির্দেশ এসেছে। আমরা আগামীকাল সকাল থেকে থানাগুলোতে বসব আর থানার কার্যক্রম মনিটরিং করব।                            

ডিএমপি কমিশনার তার অফিস নির্দেশনায় উল্লেখ করেছেন, প্রায়ই অভিযোগ পাওয়া যায় যে, নিরীহ অসহায় জনসাধারণের একটা বিরাট অংশ থানায় তার প্রাপ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। আমলযোগ্য অপরাধ সংক্রান্ত অভিযোগ আমলে না নেওয়া, অনাকাঙ্ক্ষিত কালক্ষেপণ করা হয়। ভুক্তভোগীর কাছ থেকে অনৈতিক সুবিধা গ্রহণসহ অনেক সময় অযথা হয়রানিমূলক আচরণের মাধ্যমে তাদের প্রাপ্য আইনগত অধিকার থেকে বঞ্চিত করার অভিযোগও পাওয়া যায়। তাই থানায় সেবার মান বৃদ্ধি ও সেবাপ্রত্যাশীরা যাতে হয়রানির শিকার না হন সে ব্যাপারে ওসিরা কার্যকর ব্যবস্থা নেবেন। পাশপাশি জোনাল এসি ও এডিসিরা সার্বক্ষণিক থানার কার্যক্রম মনিটরিং করবেন।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট ডিসিরা তার আওতাভুক্ত প্রতিটি থানায় প্রতি সপ্তাহে অবস্থানের জন্য পরিকল্পনা করবেন। সে অনুযায়ী থানায় কমপক্ষে ২-৩ ঘণ্টা অবস্থান করে থানার বাস্তব কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করবেন। সেবাপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলে সরাসরি আইন অনুযায়ী সমস্যার সমাধানের ব্যবস্থা করবেন।

এ বিষয়ে রমনা বিভাগের ধানমন্ডি জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আব্দুল্লাহ হেল কাফি    বলেন, আমরা ইতিমধ্যে এমন নির্দেশনা পেয়েছি। সংশ্লিষ্ট জোনে মনিটরিং কাজ শুরু করেছি।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন