রিয়েল এস্টেট জগতে তরুণ উদ্যোক্তার অভিনব ভোক্তা-সেবা

995
gb

ইবনে জামান।। ঢাকা ||
ব্যবসা বাণিজ্যের সবগুলো খাতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এই অগ্রযাত্রার অগ্রদূত হিসেবে কাজ করছেন তরুণ উদ্যোক্তারা। বর্তমানে কোনো পণ্য উৎপাদন থেকে শুরু করে বিপণন পর্যন্ত সবগুলো ধাপ তথ্যপ্রযুক্তির উপযুক্ত ব্যবহারের মধ্য দিয়েই হচ্ছে। আর সেবা খাতে এনেছে এক বিস্ময়কর বিপ্লব। ভেবে দেখুন তো রাইড শেয়ার সার্ভিস
” পাঠাও ” মাত্র একটি অ্যাপস-এর উপর ভিত্তি করে লক্ষ লক্ষ মানুষকে সেবা দিচ্ছে। আবার “টেন মিনিট স্কুল “একটি ফেসবুক পেজ এবং ওয়েবসাইট এর উপর ভিত্তি করে দেশের অসংখ্য ছাত্রছাত্রীকে পাঠদান করছে যা কয়েক বছর আগে বাংলাদেশে আমরা চিন্তা ও করতে পারিনি।

তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের রিয়েল এস্টেট জগতে ফ্ল্যাট ক্রয়ের সকল ধরণের পরামর্শ ও সহযোগিতা করার জন্য একটি ওয়েবসাইট ও ফেসবুক ভিত্তিক অনলাইন সেবা চালু করা হয়েছে । যেখানে বিভিন্ন আর্টিকেল পড়ে নিজেকে একজন সচেতন ক্রেতা হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব । পাশাপাশি সরাসরি অথবা মোবাইল ফোনে রিয়েল এস্টেট পরামর্শকের সাথে আলোচনা করে এ বিষয়ে সঠিক পরামর্শ নেয়া যাবে। এ উদ্যোগের উদ্যোক্তা অনিক রায়হান জানান, “আমাদের সার্ভিসটি দুই ভাগে বিভক্ত । প্রথমত এ বিষয়টি জানতে চাইলে সরাসরি অথবা অনলাইনে ফোন কলের মাধ্যমে আমাদের পরামর্শ সেবা নিতে পারেন। আমরা ক্রেতাদের সুবিধার জন্য ফেইসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপেও সার্ভিসটি নেওয়ার সুবিধা রেখেছি। আবার পরামর্শের পাশাপাশি ফ্ল্যাট সার্চিং থেকে শুরু করে ফ্ল্যাট রেজিস্ট্রেশন পর্যন্ত সর্বমোট ২০ টি ধাপে আমরা একজন কাস্টমারের সাথে থেকে সহযোগিতা করে সেবাটি প্রদান করে থাকি।”

কারো এ বিষয়ে জানার ইচ্ছা হলে ওয়েবসাইট ভিজিট করে বিভিন্ন আর্টিকেল পড়েও অনেক কিছু আয়ত্ত করে নেয়া যাবে। মূলত এই সেবাটি ভোক্তা অধিকার এর উপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে যা অনলাইনের মাধ্যমে সকল ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। উদ্যোক্তা জানান, এই অভিনব (ইনোভেটিভ) সেবা চালু করার জন্য উদ্যোক্তা তিন বছর সময় নিয়েছেন বিভিন্ন জরিপ, গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ করার জন্য। দেশে ও প্রবাসে কষ্টে অর্জিত টাকায় ফ্ল্যাট কেনার আগে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করা যেতে পারে www.acceptcs.com