সিলেট সদর সাবরেজিস্ট্রি অফিসের ৪ কর্মচারীকে বরখাস্ত

288
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

দলিল জালিয়াতির অভিযোগে সিলেট সদর সাবরেজিস্ট্রি অফিসের চার কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তারা হলেন- উমেদার নাহিদ ও নবজিত এবং নকলনবিশ মাহমুদ ও নুরুজ্জামান। সাবরেজিসি্িট্র অফিসের রেকর্ড কিপার কামরান চৌধুরী সংবাদ মাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
নগরীর মুমিন খলা মৌজার প্রায় দুই কোটি টাকা মূল্যের ৩০ শতক ভূমির জাল দলিল সম্পাদনের অভিযোগে মঙ্গলবার সদর সাব রেজিস্ট্রার তাদেরকে বরখাস্ত করেন বলে জানান কামরান চৌধুরী।

সিনিয়র নকল নবিশ মুহিবুর রহমান জিলু জানান, গতকাল মঙ্গলবার সকালে রেকর্ড রুম থেকে তার নামে একটি দলিলের নকলের জন্য আবেদন জমা দেন দালাল কালাম। স্বাক্ষরের সাথে মিল না থাকায় বিয়ষটি ধরা পড়ে। পরে সে জানায় এ ঘটনার সাথে উমেদার নাহিদ জড়িত। নাহিদ জানায়, নকল নবিশ মাহমুদ এর মূলহোতা। ঘটনার সাথে জড়িত বলে নকলনবিশ নুরুজ্জামানেরও নাম চলে আসে তখন। ঘটনাটি প্রকাশের পর একে অন্যের উপর দোষ চাপালেও মাহমুদ আত্মগোপনে চলে যায়।

এদিকে, কোন দলিলটির জন্য এতো লুকোচুরি করছে এই সিন্ডিকেট খুঁজতে গিয়ে বেরিয়ে আসে মূল ঘটনা। তাৎক্ষনিকভাবে বিষয়টি উদঘাটনের উদ্যোগ নেন দলিল লেখক সমিতি, নকল নিবশ এসোসিয়েশন, রেকর্ডকিপার সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। তারা এ নিয়ে তাৎক্ষনিক বৈঠকে বসেন। এক পর্যায়ে সদর সাব রেজিস্ট্রার তাদেরকে বরখাস্তের আদেশ দেন বলে জানায় ওই সূত্র।