পেঁপের বীজেও রয়েছে ভরপুর পুষ্টিগুণ! কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

1,099
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:স্বাস্থ্য সচেতন মানুষের ডায়েট তালিকায় বহুদিন ধরেই জায়গা করে নিয়েছে পেঁপে। ভাটামিন ও মিনারেল সমৃদ্ধ পেঁপের বীজেও রয়েছে ভরপুর পুষ্টিগুণ।

১. ক্ষতিকর জীবাণু নাশ : পেঁপে বীজে রয়েছে প্রোটিওলাইটিক উৎসেচক, যা দেহে বাসা বাধা নানা ক্ষতিকর জীবাণু নাশ করে। দেহে প্রোটিন বিপাকে সাহায্য করে, পাশাপাশি, ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

২. বিপাক : দেহের মধ্যে প্রোটিন ফাইবারকে ভাঙতে এবং হজম প্রক্রিয়াকে অনেক দ্রুত করে পেঁপে বীজ।

৩. যকৃতের সুরক্ষা : ত্বকের যত্ন থেকে ক্যান্সার প্রতিরোধ, সবেতেই পেঁপের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। বিশেষজ্ঞেরা জানিয়েছেন, পানি ও দইয়ের সঙ্গে পেঁপে বীজের মিশ্রণ তৈরি করে নিয়মিত পান করলে যকৃত ভাল থাকে।

৪. ডেঙ্গু প্রতিরোধ : ডেঙ্গু প্রতিরোধে পেঁপের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলেই প্লেটলেট কমতে শুরু করে। এই সময় নিয়মিত পেঁপে বীজ এবং পেঁপে পাতা খেলে প্লেটলেট আবার স্বাভাবিক মাত্রায় ফিরে আসে।

৫. চুলের যত্ন : শীতকাল মানেই মন খুলে সাজগোজ।তবে এই সময় শুষ্ক চুল এবং খুসকির সমস্যায় ভোগেন অনেকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, নিয়মিত পেঁপে বীজ খেলে চুল ঘন হয় এবং খুসকি দূর হয়।

৬. ত্বকের যত্ন : তেলতেলে ত্বক এবং ব্রণের সমস্যা দূর করতে পেঁপে বীজ দিয়ে বানিয়ে ফেলুন ঘরোয়া মিশ্রণ। পেঁপে বীজ এবং পাতা বেটে ফেস প্যাক বানিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। ত্বকের হারানো ঔজ্জ্বল্য ফিরে আসবে।

৭. ঋতুস্রাবের ব্যথা : ঋতুস্রাবের সময় কি অসহ্য যন্ত্রণা হয় অনেকের। পিরিয়ড চলাকালীন পেঁপে বীজের সঙ্গে মধু মিশিয়ে খান। ব্যথা অনেক কম হবে।