বিএনপি জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে অস্ত্রের ভাষায় কথা বলছে ——-শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

165
gb

 ইয়ানূর রহমান : সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, বিএনপি জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে অস্ত্রের ভাষায় কথা বলছে। বিএনপি ইতিমধ্যে তাদের পরাজয় ভেবে নিয়ে দেশে অরাজক পরিবেশ সৃষ্টি করে চলেছে। আবারো পেট্রল বোমা হামলা চালাচ্ছে তারা। মানুষ আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়ছে। আপনারা সতর্ক থাকুন। এদের হাত হতে দেশ বাঁচান। তাদের আগামী নির্বাচনে ব্যালটের মাধ্যমে পরাজিত করুন। একাদশ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার দিনব্যাপী শার্শার কায়বা আওয়ামীলীগের আয়োজনে পথসভা ও গনসংযোগে তিনি একথা বলেন। অস্ত্রের ভাষায় যারা কথা বলে তাদের পরিণতি অত্যন্ত করুণ ও ভয়াবহ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি যতই আন্দোলনের হাক-ডাক দিক ওই পেট্রোল বোমার মতোই ব্যর্থ হবে। তারা অন্ধকারে ঢিল ছুড়ছে, তাদের আন্দোলনের সক্ষমতা নেই। নির্বাচন করার মত সাহসও নেই। তাই তারা নতুন করে অস্ত্রের ভাষায় কথা বলছে। যারা অস্ত্রের ভাষায় কথা বলে তারা ক্ষমতায় গেলে দেশের কী অবস্থা হবে সেটা বাংলাদেশের মানুষ খুব ভালো করে জানে। বিএনপি জালাও পোড়াও আন্দোলন করে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার যদি রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যার্থ হতেন- তবে তারা জনরোষে পড়তেন। নিরেট সত্য যে শেখ হাসিনার সরকার জনরোষে না পড়ে জনপ্রিয়তা ক্রমান্বয়ে অর্জন করেছে। আমাদের মতো সাধারন জনগন দেশের রাজনৈতিক উথ্যান বা পতন বোঝে না, বোঝে না অশান্তি আর অস্থিতিশীলতা। বোঝে সাধারন জীবন যাপন আর এই পিছিয়ে পড়া দেশটি একজন যোগ্য নেতৃত্বের মাঝ দিয়ে এগিয়ে যাক। তাই বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সাধারন মানুষ তাদের আস্থার ঠিকানা হিসাবে পুনরায় ভোটের মাধ্যমে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব অর্পন করতে চান। আর এটাই আজকের বাংলাদেশ ও তার বাস্তবতা। দেশরতœ শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সপ্নের সোনার বাংলা গড়তে যে সমস্ত উদ্যোগ নিয়েছেন তাতে ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ নির্বাচিত হয়ে সরকার গঠন করলে গ্রামকে শহরে পরিনিত করা হবে। দেশ বিদ্যুতের গতিতে আরো এগিয়ে যাবে। দেশের মানুষের কর্মস্থান বাড়বে। প্রত্যেক ঘরে ঘরে বেকারদের চাকরির ব্যবস্থা করা হবে। দেশে দারিদ্রের হার শুণ্যের কোটায় নেমে আসবে। বিশ্বের উন্নত দেশের তালিকায় দেশের নাম অধিষ্ঠিত হবে। তাই উন্নত দেশের তালিকায় দেশের নাম অধিষ্ঠিত করে গ্রামকে শহরে পরিনিত করতে উন্নয়ন ও স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট চাইলেন সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন । ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি রবিউল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধরণ সম্পাদক শরিফুল ইসলামের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এ সময় অন্যন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ-উদ দৌলা অলোক, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌস, ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান, চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন, কায়বা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংকু, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম ময়না, যুবলীগ নেতা শামীম, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার, সহ-সভাপতি আকিব জাবেদ শুভ, ছাত্রলীগ নেতা শিপলু, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মাছুদ রানা চঞ্চল ও সাধারণ সম্পাদক মিলটন হাসান প্রমুখ।#