সুন্দরগঞ্জ আসনে মহাজোট প্রার্থীর প্রচারণা

148
gb

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা //

একটি পৌরসভা ও ১৫ ইউনিয়ন নিয়ে গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ উপজেলা গঠিত। এই উপজেলা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধা-১ আসন হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনের মহাজোট প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছেন। তিনি উপজেলার ১নং বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেন। প্রচারণায় তিনি গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, সমাবেশ ও লিফলেট বিতরণসহ ভোটারদের দাড়ে দাড়ে গিয়ে তাদের সুখ-দুঃখের খোঁজ খবর নেন। এসময় জাতীয় পার্টিসহ মহাজোট অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রচারণার একাংশে মহাজোট প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি উপস্থিত ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, উপ-নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহণের পর থেকেই আমি এই উপজেলার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের সাথে সবসময় নিজেকে ব্যস্ত রেখেছি। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে উন্নয়নের ছোয়া লাগতে শুরু করেছে। আপ্রাণ চেষ্টা করেছি আপামর জনতার সুখে দুখে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। আমি সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবার জন্য বিনামূল্যে দুইটি এ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন চালু, মিনি ফুটবল স্টেডিয়ামের জমি প্রস্তাবনা অনুমোদন, নদী ভাঙন রোধে সংসদে বরাদ্দ অনুমোদন, শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ, ৬টি ইউনিয়নে ২ হাজার পরিবারের মাঝে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করণ, ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একাডেমিক ভবন নির্মাণের অগ্রগামী করণ, বামনডাঙ্গা ও হাসানগঞ্জ রেল স্টেশনকে আলোকিত করণ, ২ হাজার পরিবারের মাঝে ভিজিএফ বিতরণ, ১০০ পরিবারের মাঝে ভিজিডি বিতরণ, প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির, কালভাট, ড্রেন, ঈদ গাঁ মাঠ নির্মাণে ৯০টি টিআর প্রকল্প, ৩০০টি পরিবারের মাঝে ও ১০০টি স্থানে সোলার প্যানেল বিতরণসহ যাবতীয় উন্নয়নমুলক কাজকর্ম করেছি। এই উন্নয়নমুলক কাজকর্ম সবই দৃশ্যমান। আগামী ৩০ ডিসেম্বর আমাকে লাঙ্গল প্রতিকে আপনাদের মূল্যবান ভোটে দিয়ে পুুুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত করলে গোটা উপজেলাকে একটি স্বপ্নময় বেকারমুক্ত উপজেলা গড়ার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন তিনি।