একাদশ সংসদ নির্বাচন চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএনপি প্রার্থীর প্রচার প্রধানকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

184
gb

 জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: একাদশ সংসদ নির্বাচনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ সদর আসনে বিএনপি প্রার্থী হারুনুর রশীদের প্রচার উপকমিটির আহব্বায়ক,পৌর বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল বারেককে বিনা মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে দাবী করে এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল,সমাবেশ হয়েছে। প্রার্থীও নেতৃত্বে বিক্ষোভকারীরা রির্টার্নিং কর্মকর্তার নিকট এর প্রতিবাদও জানায়। সোমবার (১৭’ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় শহরের পাঠানপাড়াস্থ দলীয় ও প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে জমায়েত হবার পর নেতাকর্মীরা প্রার্থী হারুনুর রশীদের নেতৃত্তে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে রির্টানিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ফটকে সমাবেশ করে। এসময় প্রার্থী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসিচব হারুনুর রশিদ বলেন,মামলা ছাড়াই আব্দুল বারেক ও তাঁর দু’ভাইকে গত রাত ১টায় (১৭’ডিসেম্বর) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় পুলিশ দেয়াল টপকে বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে ও দরজা ভাঙ্গে বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন,আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে বারেককে মুক্তি দেয়া না হলে পরবর্তী কর্মসূচী দেয়া হবে। তিনি বলেন,প্রার্থীদের জন্য যেমন নির্বাচনী আচরণ বিধি রয়েছে তেমনি নির্বাচন সংশ্লিস্ট কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জন্যও নির্বাচনকালীন বিধি রয়েছে। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এই গ্রেপ্তারের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে আ’লীগ প্রার্থী ও বর্তমান সাংসদ আব্দুল ওদুদকে দায়ী করা হয়। তিনি সারা দেশব্যাপী বিএনপি প্রার্থী,নেতাকর্মীদের উপর বিভিন্ন নিপীড়নেরও অভিযোগ করেন। পরে হারুনুর রশীদের নেতৃত্বে বিএনপি নেতাদের একটি দল রির্টার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এ জেড এম নুরুল হকের সাথে তাঁর দপ্তরে দেখা করে ঘটনার প্রতিবাদ জানান ও প্রতিকার দাবী করেন। এসময় তিনি গত রোববার(১৬’ডিসেম্বর) সদর থানা বিএনপি সভাপতি ইউপি চেযারম্যান তসিকুল ইসলামের বাড়ি ঘেরাও করে পুলিশী হয়রানিরও অভিযোগ করেন। রির্টানিং কর্মকর্তা অভিযোগ শোনার পর তা লিখিত দেবার জন্য জন্য বলেন। তিনি বলেন, যা কিছু করণীয় তা আচরণ বিধি মেনেই করতে হবে। প্রতিবাদও নিয়মতান্ত্রিক হতে হবে। কর্মসূচীতে প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ও সদর থানা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম মতি, পৌর বিএনপি সভাপতি রবিউল হক দোলন,সাধারণ সম্পাদক ময়েজউদ্দিন, গ্রেপ্তার আব্দুল বারেকের স্ত্রী সাহিদা বেগম প্রমুখ অংশ নেন। কাউন্সিলর আব্দুল বারেক ও তার ভাইদের গ্রেপ্তারের ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউর রহমান বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ তাঁদের বাড়ি থেকে নিয়ে এসেছে। ###