অভিবাসন আবেদন বাতিলের পর ভুল স্বীকার করল যুক্তরাজ্য

214
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

বাংলাদেশিসহ বেশ কয়েকজন দক্ষ পেশাজীবীর অভিবাসন আবেদন অনুমতি বাতিলের ক্ষেত্রে ভুল স্বীকার করেছে যুক্তরাজ্য সরকার। বিষয়টি এমনকি ব্রিটিশ পার্লামেন্টেও উঠেছে।

সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়ার কিছু আবেদনকারী দক্ষ পেশাজীবীর অভিবাসন আবেদন বাতিল করা হয় যুক্তরাজ্যে। বিষয়টি পার্লামেন্টে উঠলে বৃহস্পতিবার দেশটির অভিবাসনমন্ত্রী ক্যারোলিন নোকস পার্লামেন্টে এক বিবৃতিতে ৩১টি আবেদনের ক্ষেত্রে ভুল হওয়ার কথা স্বীকার করেন। ভবিষ্যতে এসব বিষয়ে সতর্ক থাকা হবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

আবেদন বাতিল হওয়াদের বেশিরভাগ বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তান থেকে আসা। আয়ের বিষয়ে ভুল তথ্য দেয়ায় মূলত তাদের এসব আবেদন বাতিল করা হয়। এরপর অবশ্য ৩১টি বাতিল আবেদনের মধ্যে ১২টির ক্ষেত্রে ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করে নিয়ে তাদের বসবাসের অনুমতি দেয়া হয়েছে। বাকি ১৯টি আবেদন পুনর্বিবেচনার ক্ষেত্রে আরও তথ্য দরকার বলে জানানো হয়েছে।

যুক্তরাজ্যে কমপক্ষে পাঁচ বছর দেশটিতে থাকার পর এসব আবেদনকারী স্থায়ী বসবাস বা বসবাসের অনির্দিষ্টকালীন অনুমতির (আইএলআর) জন্য আবেদন করেছিলেন। তবে ব্রিটিশ অভিবাসন আইনের ৩২২(৫) ধারা ব্যবহার করে এসব আবেদন বাতিল করা হয়। এক্ষেত্রে কর বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দেয়া আয় বিষয়ক তথ্যে অসঙ্গতি থাকায় তাদের চরিত্রকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছিল।