সৌদির কাছে অস্ত্র হস্তান্তরে বিধিনিষেধ চান মার্কিন আইনপ্রণেতা

92
gb

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের পররাষ্ট্রবিষয়ক কমিটির প্রধান ইলিয়ট অ্যাঞ্জেল বলেছেন, সৌদি আরব প্রতিবেশী ইয়েমেনের উগ্রপন্থীদের হাতে অস্ত্র হস্তান্তর করছে বলে যে খবর বেরিয়েছে, তাতে তিনি অস্বস্তিবোধ করছেন। কাজেই সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের কাছে অস্ত্র বিক্রিতে আরও বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে কিনা, সেই প্রশ্ন রাখেন তিনি।

বুধবার দিন শেষে একটি যুদ্ধ-শক্তি প্রস্তাবের পক্ষে কমিটির ২৫ ভোট পড়েছে। আর বিপরীতে পড়ে ১৭টি। এ প্রস্তাব অনুসারে ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হুতি-বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত সৌদিসহ অন্যান্য দেশকে কোনো সহায়তা করতে পারবে না মার্কিন সামরিক বাহিনী।

সোমবার সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ইয়েমেনে হুতি বিরোধী জোটের মূল দুই অংশীদার সৌদি ও আরব আমিরাত মার্কিন নির্মিত অস্ত্র আল কায়েদা সংশ্লিষ্ট যোদ্ধাসহ বিভিন্ন গোষ্ঠীর হাতে হস্তান্তর করছে। এর মধ্যে কিছু অস্ত্র ইরান সমর্থিত যোদ্ধাদের হাতে গিয়ে পড়ছে।

এভাবে স্পর্শকাতর প্রযুক্তিগুলো গিয়ে ইরানের কাছে ধরা খাচ্ছে।

শুনানিতে প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য ইলিয়ট অ্যাঞ্জেল বলেন, সৌদি ও তাদের মিত্রদের নিয়ে এ প্রতিবেদন খুবই অস্বস্তিকর। কাজেই এমনটি যাতে না ঘটে তা প্রতিরোধে ট্রাম্প প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে হবে এবং এ নিয়ে তদন্ত করতে হবে।

অ্যাঞ্জেল বলেন, কাজেই সৌদি জোটের কাছে মারাত্মক অস্ত্র হস্তান্তরের ক্ষেত্রে কী বিধিনিষেধ আরোপ করা উচিত হবে না?

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা এ অভিযোগের বিরুদ্ধে তদন্ত চালাচ্ছে। কর্মকর্তারা বলেন, আমরা এ প্রতিবেদনের বিষয়ে সজাগ আছি। আরও অতিরিক্ত তথ্য অনুসন্ধান করা হচ্ছে। এ ধরনের সব প্রতিবেদন গুরুত্বের সঙ্গে নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More