সিলেট-২ আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?

116
gb

সিলেট নিউজ: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি। এমন প্রশ্নে আলোচনা-সমালোচনাসহ চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন এলাকার সাধারণ মানুষ। এবার ওজন মেপেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী মনোনয়ন দিবে ক্ষমতাসীন আ. লীগ। কারণ আগামী নির্বাচন দলটির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।

জনবিছিন্ন, বিতর্কিত দলীয় এমপি ও দখলবাজ নেতারা একাদশ নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত হবেন। এটাও নিশ্চিত সেক্ষেত্রে প্রার্থীর সবদিক বিবেচনা করে দলীয় প্রতীকে প্রার্থী মনোনয়ন দেবে আ. লীগ। বিশেষ করে সিলেট-২ আসন থেকে দলীয় মনোনয়নের ক্ষেত্রে খুবই সর্তকতা অবলম্বন করবে দলটির নীতি নির্ধারকগণ।

ইতিমধ্যে প্রার্থীতা নিয়ে শুরু হয়েছে গ্রুপিং আর লবিং। বিএনপিতে লবিং বিদ্যমান না থাকলেও ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগে শুরু হয়েছে তুমুল প্রতিযোগিতা। দলীয় মনোনয়ন পেতে তিনজন মনোনয়ন সংগ্রহ করলেও প্রার্থীতাঁর দৌড়ঝাপে আছেন দুই উপজেলার দুই শক্তিশালী নেতা। তাদের মধ্যে একজন বিশ্বনাথ উপজেলার সাবেক সাংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও আরেকজন ওসমানীনগর উপজেলার যুক্তরাজ্য আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

তফশীল ঘোষণা ও মনোনয়ন সংগ্রহের পর এনিয়ে বেশ অন্ধকারে আছেন দলটির স্থানীয় নেতাকর্মীরা। কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি ? দুই উপজেলার দুই শক্তিশালী নেতার মনোনয়ন পাওয়া-না পাওয়া নিয়ে এখন বেশ অসস্থিতে ভুগছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। এনিয়ে যেন বিশ্লেষণের শেষ নেই। স্থানীয় বাজার, গনমাধ্যম আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এনিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ।

শক্তিশালী এই দুই বলয়ের নেতা কর্মীরা নিজ নিজ প্রার্থীকে এগিয়ে রাখছেন মনোনয়ন দৌড়ে। তবে শেষমেশ কে হচ্ছেন নৌকার কান্ডারী এই ফলাফল পেতে এখন বেশ মুখর দলীয় নেতাকর্মীরা ও এলাকার জনসাধারণ। অন্যদিকে দশম জাতীয় নির্বাচনের মতো জোটগত ভাবে এ আসনে ফের জাপাকে প্রার্থীকে ঘোষনা করলে বদলে যেতে পারে সব হিসেব নিকেশ।

এদিকে আওয়ামীলীগে মনোনয়ন নিয়ে জটিলতা থাকলেও নিরাপদে রয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস পত্নী লুনা। বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে তিনি আছেন এখন বেশ ফুরফুরে। তবে কোনো কারণে নির্বাচন করতে না পারলে সিলেট-২ আসনে ধানের শীষের কান্ডারী হবেন মায়ের সাথে ডামি প্রার্থী হিসেবে থাকা ইলিয়াস পুত্র ব্যারিস্টার আবরার ইলিয়াস অর্ণব।