বড়পর্দায় প্রথমবার জুটি বাঁধছেন সালমান-দীপিকা!

89

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

ছোটপর্দায় তাঁদের একসঙ্গে আগেই দেখা গিয়েছিল। কিন্তু বড়পর্দায়? বহুবার হবে হবে করেও হয়নি। তবে এবার মনে হচ্ছে, অনুরাগীদের ইচ্ছাপূরণ হয়েই যাবে। বড়পর্দাতেও জুটি বাঁধছেন সালমান খান ও দীপিকা পাড়ুকোন।

বহুদিন আগেই একে অপরের সঙ্গে ছবি করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন সালমান খান ও দীপিকা পাড়ুকোন। কিন্তু তালেগোলে আর হয়ে ওঠেনি। হয়তো দুজনের একই চিত্রনাট্য পছন্দ হয়নি, বা পরিচালক দুজনকে একসঙ্গে এক ছবিতে নিতে চাননি। কী যে হয়েছে, তা ঠিক জানে না কেউ। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এক ছবিতে দুজনকে দেখা যায়নি। তবে এবার মনে হচ্ছে সঞ্জয় লীলা বানশালির দৌলতে সেই খরা কাটতে চলেছে। দুই তারকাকে একই ছবিতে কাস্ট করতে চান তিনি। ছবির নাম ‘ইনশাআল্লাহ’। তারই নাকি প্রস্তুতি চলছে।

দীপিকার প্রতি যে বানশালির একটা আলাদা ভাললাগা রয়েছে, তা নিয়ে কোনও দ্বিমত নেই। ‘গলিয়োঁ কি রাসলীলা রামলীলা’, ‘বাজিরাও মস্তানি’ আর ‘পদ্মাবত’ সুপারহিট হওয়ার পরই দীপিকায় মজেছেন বানশালি। দুজনের মধ্যে পেশাগত সম্পর্ক তো ভালই, ব্যক্তিগত সম্পর্কও খুব একটা খারাপ নয়। তাই আবারও দীপিকার সঙ্গে ছবি করতে তাঁর কোনও আপত্তি তো নেই-ই, বরং তিনি আগ্রহী। আর সালমানের সঙ্গেও বর্তমানে বানশালির সম্পর্ক ভাল। তাই এবার তাঁর পরবর্তী ছবিতে সালমান ও দীপিকা, দুজনকেই নাকি কাস্ট করতে চান বানশালি। এদিকে সমস্ত বিবাদ ভুলে প্রায় দুদশক পর বানশালির ছবিতে ফের দেখা যাবে সালমানকে। শেষবার ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে সালমানের সঙ্গে কাজ করেছিলেন তিনি।

এর আগে শোনা গিয়েছিল, ‘ইনশাআল্লাহ’ ছবির জন্য বানশালির টিম ইন্ডিয়ান মোশন পিকচার্স প্রোডিউসরস অ্যাসোসিয়েসন (IMPPA) –এর সঙ্গে জুটি বেঁধেছে। সূত্রের খবর, গত সপ্তাহেই এই সংক্রান্ত যাবতীয় কাজকর্ম হয়ে গিয়েছে। সাধারণ কোনও ছবির খসড়া তৈরির আগে ছয় থেকে নয় মাস সময় নেন বানশালি। এক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হবে না। তাই সম্ভবত পরের বছর শুরু হবে ‘ইনশাআল্লাহ’-র শুটিং। ২০২০ সালের ইদে মুক্তি পেতে পারে ছবিটি।

মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More