সাতক্ষীরায় কলেজ ছাত্র হাবিবুল্লাহ সরদার হত্যা মামলায় ১ জনের ফাঁসি দুই জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত

138
gb

 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কলেজ ছাত্র হাবিবুল্লাহ সরদার হত্যা মামলায় একজনকে মৃত্যুদন্ড ওদুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় আরও নয়জনকেবিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে। আদালত বাকি ২৩ আসামিকখালাস দিয়েছেন।
সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অরুনাভচক্রবর্তী আজ সোমবার জনাকীর্ণ আদালতে এই রায় ঘোষনা করেন।ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামি ডা. সাইফুল্লাহ পলাতক রয়েছেন। যাবজ্জীবনকারাদন্ডপ্রাপ্ত অপর দুই আসামি হলেন মামুন ও জিয়ারুল ইসলাম।মামলার বিবরনে জানা গেছে-২০১৪ সালের ১১ জুলাই কৃষি জমিতে গভীরনলক‚পের পানি বিতরনকে কেন্দ্র করে আশাশুনি উপজেলার বাঁকড়া গ্রামের দুইপাড়ার বাসিন্দাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের হামলায় পািনবিতরন কমিটির সভাপতি আলিমুদ্দিন সরদারের ছেলে সাতক্ষীরা সরকারিকলেজের সম্মান বিভাগের ছাত্র হাবিবুল্লাহ সরদার নিহত হন। এ ঘটনায়দায়েরকৃত মামলায় পুলিশ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট দেয়।বিচারে আদালত ১২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেন। দন্ডিত অপরআসামিরা হলেন মো. জুলফিকার, আবু হাসান, আবদুল মালেক, আবদুসসালাম, রব্বানি, বেল্লাল হোসেন, জামান , রহিম ও পিকলু। এর আগে গত ৫জুলাই মামলার তিনজন আসামি নিজামুদ্দিন সরদার, তার ভাই খায়রুল্লাহসরদার ও তাদের বোন জামাই রফিকুল ইসলাম আদালত চলাকালে পালিয়ে যায়।
সরকার পক্ষে এ মামলা পরিচালনা করেন পিপি অ্যাডভোকেট তপন কুমার দাস। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট হায়দার আলি ও তার সহযোগীরা।