স্থানীয় সংসদ সদস্যকে উপেক্ষা করায় আওয়ামীলীগের একাংশের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রীয়া

যোগ্য ব্যক্তিকে নির্বাচিত করে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করুণ... উপদেষ্টা মসিউর

514
gb

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ||
প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর যোগ্য উত্তরসূরী হিসাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধারাবাহিক দেশ পরিচালনায় সফলতার পরিচয় দিয়েছেন। তিনি বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর একান্ত সচিব ছিলাম। সরকারি কর্মকর্তা, সরকার ও দলের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে কাজ করেছি। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কাজ করতে গিয়ে কাছ থেকে দেখেছি দেশ ও মানুষের প্রতি তাদের ভালবাসা। তাদের ভালবাসায় অনুপ্রাণিত হয়ে আমি দীর্ঘ ৪৫ বছর তাদের সাথে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। ভবিষ্যতেও দেশ ও মানুষের জন্য কাজ করতে চায়। খুলনা-৬ আসনের নির্বাচন প্রসঙ্গে উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান বলেন, দেশের যে কোন এলাকার চেয়ে পাইকগাছা-কয়রার সমস্যায় ভিন্নতা রয়েছে। সুপেয় পানির সংকট, লবণাক্ততা ও দূর্বল বাঁধ এ এলাকার অন্যতম সমস্যা উলে­খ করে এখানকার সমস্যা সমাধানে আলাদা ভাবে বিবেচনা করা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এখন জনগন অনেক সচেতন। যে কোন ব্যক্তিকে জনগণ ভোট দেয় না। দলও জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে প্রার্থী নির্ধারণ করে না। এ জন্য প্রত্যেক প্রার্থীকে জনগণের কাছে আস্থা অর্জন করতে হবে। তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা চাইলে আমি আপনারদের জন্য কাজ করতে চাই। এ জন্য আপনাদের চাওয়া-পাওয়া এবং ইচ্ছার বিষয়টি দলের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানাতে হবে। এ ক্ষেত্রে দল নিশ্চই বিষয়টি বিবেচনা করবেন। সবশেষে তিনি আগামী নির্বাচনে যোগ্য ব্যক্তিকে নির্বাচিত করে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহŸান জানান। তিনি সোমবার বিকালে পৌরসভা মাঠে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক গাজী মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মোঃ রশিদুজ্জামানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপদেষ্টা পতœী রওশন রহমান ইভা, জেলা আওয়ামীলীগনেতা রফিকুল ইসলাম রিপন, নূরুজ্জামান, ডাঃ শেখ মোহাম্মদ শহীদ উল­াহ, জেলা পরিষদ সদস্য খালেদীন রশিদী সুকর্ণ, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, আওয়ামীলীগনেতা শেখ কামরুল হাসান টিপু, কওছার আলী জোয়াদ্দার, কেএম আরিফুজ্জামান তুহিন, আনন্দ মোহন বিশ্বাস, শেখ ইকবাল হোসেন খোকন, গাজী নজরুল ইসলাম, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম, মহিলা লীগনেত্রী মাছুমা বেগম, যুবলীগনেতা এসএম শামছুর রহমান, কাজল কান্তি বিশ্বাস, শেখ আবুল কালাম আজাদ, শফিকুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, ছাত্রলীগনেতা মৃণাল কান্তি বাছাড় ও আব্দুল­াহ আল মামুন। এদিকে স্থানীয় সংসদ সদস্যকে উপেক্ষা করে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের একদিন আগে এ ধরণের জনসভা করায় আওয়ামীলীগের একাংশের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রীয়া দেখা দিয়েছে।