যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইওভার থেকে ছিটকে ট্রেন রাস্তায়, বহু হতাহত

1,276
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইওভার থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে নিচের ব্যস্ত রাস্তায় পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত অন্তত ১০০ জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

অ্যামট্রাক কম্পানির যাত্রীবাহী ট্রেনটির নতুন একটি রুটের উদ্বোধনী যাত্রায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষ তিনজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। যদিও তাদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এপি অন্তত ছয়জনের মৃত্যুর কথা উল্লেখ করছে।

এটি ছিল নতুন একটি রুটেও ট্রেনটির উদ্বোধনী যাত্রা। হেলিকপ্টার থেকে তোলা ছবিতে দেখা যাচ্ছে ফ্লাইওভারের দুই পাশেই ট্রেনের সবগুলো বগি পরে রয়েছে। একটি বগি খুব বিপজ্জনকভাবে ঝুলে রয়েছে। সিয়াটল থেকে নতুন চালু হওয়া রুটে ট্রেনটি পোর্টল্যান্ড যাবার পথে যাত্রা শুরুর ৪৫ মিনিটের মাথাতেই ফ্লাইওভার থেকে নিচের ব্যস্ত সড়কে আছড়ে পড়ে এটি।

সময়টি ছিল সকালের খুব ব্যস্ত সময়। রাস্তায় বেশ কয়েকটি গাড়ির ওপর গিয়ে পড়ে ট্রেনের বগি।

ট্রেনটিতে ওই সময় ৮০ জন মানুষ ছিল বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এই ঘটনায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির কথা বলছে কাউন্টি শেরিফ ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র অ্যাড ট্রোয়ার।

ট্রোয়ার বলেন, ‘এই মুহূর্তে যেটুকু বলতে পারি ট্রেনটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রাস্তার কথা বলতে পারছি না। বহু মানুষ সাহায্যের জন্যে এগিয়ে এসেছে। তিনি বলেন, সেখানে উদ্ধারকর্মীর কাজ করছেন। অনেককেই বিধ্বস্ত ট্রেন থেকে বের করে আনা হয়েছে। উদ্ধারকাজে এখনো অনেক সময় লাগবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে চিকিৎসার জন্যে। ওয়াশিংটন গভর্নর জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে উদ্ধার তৎপরতার আহ্বান জানিয়েছেন। ট্রেনটির একজন যাত্রী ক্রিস কারেন্স বলেন, ‘যাত্রীরা ভীষণ আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল। আমরা যেইমাত্র ডুপন্ট পেরিয়েছি, মনে হলো আমরা একটি বাঁকের মধ্য দিয়ে যেতে শুরু করলাম আর হঠাৎই প্রচণ্ড শব্দ শুনতে পেলাম।  মনে হলো যেন আমরা আচমকা একটি পাহাড়ের ওপর থেকে পড়ে যাচ্ছি। ‘

জাতীয় নিরাপত্তা বোর্ড দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত শুরু করেছে। অ্যামট্রাক কর্তৃপক্ষ যদিও জানায়নি ট্রেনটি দুর্ঘটনার পূর্বমুহূর্তে ঠিক কত গতিবেগে যাচ্ছিল। আবার রেলপথের ওপর কোনো কিছু ছিল বলেও অনেকে ধারণা করছে। তবে সে সম্পর্কেও কোনো মন্তব্য করেনি কর্তৃপক্ষ।