ঝিনাইদহে ছেলেকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

63
gb
4

জিবি নিউজ ডেস্ক ।।

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় শিশু সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মা রিফা খাতুন (২৬)। নিহত শিশুর নাম রাব্বী (৫)।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মহেশপুর উপজেলার বাকোসপোতা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বাকোসপোতা গ্রামের মামুন ছেলে রাব্বীকে নিয়ে ঘরের বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত ৩টার দিকে গোয়াল ঘরে গরুর খাবার দিয়ে ফিরে এসে দেখেন বিছানায় ছেলে রাব্বী নেই।

ঘরের জানালা দিয়ে টর্চের আলোয় স্ত্রী রিফা খাতুনের মরদেহ ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায়।

এ সময় তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে দরজা ভেঙে ভিতরে মা ও ছেলেকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান।

খবর পেয়ে শনিবার সকালে পুলিশ নিহতদের মরদেহ দুটি উদ্ধার করে।

মহেশপুর থানার ওসি রাশেদুল আলম বলেন, মরদেহ দুটি ময়না তদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, ছেলেকে প্রথমে শ্বাসরোধে হত্যার পর মাও আত্মাহত্যা করেছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন