নবগঠিত পলাশবাড়ী পৌর প্রশাসক আবু বকর প্রধানকে গণসংবর্ধনা

31
gb

 

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত আস্থাভাজন ব্যক্তি গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু বকর প্রধানকে রাষ্ট্রপতি আদেশক্রমে নবগঠিত পলাশবাড়ী পৌরসভার প্রশাসক নিয়োগ দেয়ায় গণসংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

আজ ১৭ ফেব্রয়ারী সোমবার বিকেলে ঢাকা থেকে আবু বকর প্রধান পৌরশহরের চৌমাথা মোড়ে পৌঁছলে তাকে এক অনুষ্ঠানে মাধ্যমে হাজারো পৌরবাসী তাকে বরণ করে নেয় এসময় তাকে দলীয় নেতাকর্মীরাসহ বিভিন্ন সামাজিক পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ হতে গণসংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এসময় সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি আলহাজ্ব তোফাজ্জল হোসেন সরকার, আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাদশা, আলী রেজা মোস্তফা গোলাপ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ কবির সুমন ও জাসদ সভাপতি নুরুজ্জামান প্রধান,শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুজ্জামান প্রান্ত,বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সদস্য সচিব আশরাফুল ইসলাম তিতাসসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সংবর্ধনা গ্রহনকালে নিয়োগপ্রাপ্ত পৌর প্রশাসক আবু বকর প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞা জ্ঞাপন করে তিনি বলেন,বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক হিসাবে আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব আমি সকলকে সঙ্গে নিয়ে সঠিকভাবে পালন করবো। এছাড়াও উপনির্বাচনে নৌকা মার্কার মনোনীত প্রার্থী এ্যাড.উম্মে কুলসুম স্মৃতির পক্ষে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচনী কর্মকান্ড পরিচালনার দিকনির্দেশনা প্রদান করেন । এসময় উপস্থিত সর্বস্তরের মানুষের নিকট উপ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও গাইবান্ধা জেলা বাস মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব।

অমর একুশে উপলক্ষে উদীচী-গাইবান্ধার তিনদিনব্যাপী কর্মসূচী শুরু

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি
অমর একুশে উপলক্ষে উদীচী, গাইবান্ধা জেলা সংসদ আয়োজিত তিনদিব্যাপী কর্মসূচীর প্রথম দিনে ১৭ ফেব্রয়ারী সোমবার বিকেলে স্থানীয় পৌর শহীদ মিনারে শিশুদের সুন্দর হাতের লেখা, চিত্রাংকন, শুদ্ধ বানানে বাংলা লেখা প্রতিযোগিত অনুষ্ঠিত হয়। এতে শতাধিক শিশু শিক্ষার্থী অংশ নেয়।
আগামীকাল মঙ্গলবার ও বুধবার একই স্থানে সন্ধ্যা ৬টায় আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী এবং ২১ ফেব্রয়ারি শুক্রবার সকাল ৭টায় উদীচী জেলা কার্যালয় থেকে প্রভাত ফেরি শেষে শহীদ মিনারে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানোর মধ্য দিয়ে তিনদিনব্যাপী কর্মসূচী শেষ হবে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন