রোহিতকে আউটের পর ইবাদতের স্যালুট!

180
gb

জিবি নিউজ ২৪ ডেস্ক//

ইনিংসের ১২তম ওভারে জীবন ফিরে পাওয়া ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মাকে এলবির ফাদে ফেলে সাজঘরে পাঠান টাইগার বোলার ইবাদত হোসেন। এসময় সেটি স্যালুট জানিয়ে উদযাপন করেন তিনি।

ভারতীয় এ ওপেনারকে দ্রুত ফেরানোর সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করে বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত ১২ রানে ক্যাচ তুলে দেন রোহিত। তার পুল শটে বল উড়ে গিয়ে ফাইন লেগে থাকা আল-আমিনের হাতে গিয়ে পড়ে। হাতে সময় ছিল আর বলও তার হাতে পৌঁছে গিয়েছিল, কিন্তু সবাইকে হতভম্ব করে দিয়ে এই সহজ ক্যাচও ফেলে দেন আল-আমিন।

এ নিয়ে টাইগার সমর্থকদের মাঝে হতাশা বিরাজ করে। ইনিংসের ১৩তম ওভারে ইবাদতের করা বল উইকেটের বাইরে দিয়ে যাচ্ছে মনে করে ছেড়ে দেন রোহিত শর্মা। কিন্তু বলটি ইনসুইং করে ভেতরে ঢুকে যাওয়ার পর জোরালো আবেদনে আম্পায়ার আউট ঘোষণা করেন। এসময় ইবাদত স্যালুট জানিয়ে উদযাপন করেন।

তবে রোহিত আম্পায়ারের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ নেন। টিভি রিপ্লাইয়ে দেখা যায়, বলটি সরাসরি স্ট্যাম্পের মধ্যেই ছিল। যার ফলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন ভারতের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান। তিনি করেন ২১ রান।

এর আগে ইন্দোরে সিরিজের ১ম টেস্টে দ্বিশতক হাঁকানো মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে ইডেনে মাত্র ১৪ রানেই ফিরিয়ে দেন আল-আমিন। দলীয় ২৬ রানে তার বলে মিরাজের ক্যাচ হয়েই সাজঘরে ফেরেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে গোলাপি বলের টেস্টে কোনও বোলারের প্রথম উইকেটপ্রাপ্তির কীর্তিও এখন আল-আমিনের দখলে।

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় শুরু হয় গোলাপি বলের ঐতিহাসিক দিবারাত্রির টেস্ট। যেখানে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধন্ত নেন বাংলাদেশ দলনেতা মুমিনুল হক। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা টাইগারদের ইনিংস গুটিয়ে যায় মাত্র ১০৬ রানে।

টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ রান আসে ওপেনার সাদমানের ব্যাট থেকে। তিনি করেন ২৯ রান। ভারতের হয়ে ইশান্ত শর্মা ৫টি, উমেশ যাদব ৩টি ও মোহাম্মদ শামি ২টি করে উইকেট নেন।

খেলা শুরুর আগে ইডেনে ঐতিহাসিক ঘণ্টা বাজিয়ে টেস্ট ম্যাচের উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এসময় তাদের পাশেই ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।