লন্ডনে সাংবাদিকদের তোপের মুখে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

56
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

লন্ডনে ‘সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা’ বিষয়ে বক্তৃতা দিতে গিয়ে সাংবাদিকদের তোপের মুখে পড়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ কোরেশি। মাহমুদ কোরেশিকে বয়কট করে সভাকক্ষ ছেড়ে বেরিয়ে যান সাংবাদিকরা।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার লন্ডনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে বক্তব্য রাখছিলেন মাহমুদ কোরেশি। সে সময় কানাডার সাংবাদিক এজরা লেভান্ট তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করার জন্য সরাসরি পাকিস্তানের সরকারের বিরুদ্ধে আঙুল তোলেন।

এজরা লেভান্ট বলেন, আপনি সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কথা বলছেন, কিন্তু আপনার দেশই আমার লেখা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে। আমার লেখায় নাকি ইসলামের অবমাননা করা হয়েছে। আপনারাই আমার টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করিয়েছেন। আপনাদের দেশেই সাংবাদিকদের ওপর সব চেয়ে বেশি হামলা হয়। আপনি একজন ঠগ ছাড়া কিছু নন।

এ ধরনের তোপে হকচকিয়ে যান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। নিজের সমর্থনে তিনি দাবি করেন, পাকিস্তানেই সবচেয়ে বেশি স্বাধীনভাবে কাজ করেন সাংবাদিকরা। তবে তাঁর যুক্তি ধোপে টেকেনি। পাকিস্তানে সাংবাদিক নিগ্রহের প্রতিবাদে সভাকক্ষ ছেড়ে চলে যান সংবাদকর্মীরা। প্রায় পাঁচশ’ জনের সভাকক্ষে রয়ে যান মাত্র ১৫ জন মানুষ। তাঁদের মধ্যে অর্ধেক পাকিস্তান দূতাবাসের কর্মী ও বাকিরা নিরাপত্তারক্ষী। এ অবস্থায়ই প্রায় ৩০ মিনিট ভাষণ দেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সম্প্রতি পাকিস্তানে ‘গুম খুন’ নিয়ে একটি প্রবন্ধ প্রকাশ করেন শাহজেব জিলানি নামের এক সাংবাদিক। এ কারণে তাঁর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়। অভিযোগ, পাকিস্তান সেনাবাহিনীর নির্দেশে এই কাজটি করা হয়। চলতি মাসেই কারাবন্দি পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারির সাক্ষাৎকার সম্প্রচার করায় তিনটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তানের সরকার। একইসাথে কয়েকজন সাংবাদিককেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More