পাক সমর্থককে ম্যাচের টিকিট দিলেন ধোনি

84
gb

আগামীকাল রোববার বিশ্বকাপ মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে ভারত ও পাকিস্তান হাইভোল্টেজ ম্যাচ। এ ম্যাচকে ঘিরে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা।

মাঠে গড়ানোর বহু আগেই বিশেষজ্ঞদের নানা সমীকরণের জালে আবদ্ধ সেই ম্যাচ। ম্যাচটি দেখার জন্য যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৬ হাজার কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে ম্যানচেস্টারে গিয়েছেন পাকিস্তান দলের সমর্থক মোহাম্মদ বশির।

অথচ টিকিট কিনেননি তিনি, চেষ্টাও করেননি। কারণ হিসাবে জানা গেছে, তাকে পাক-ভারত মহারণের টিকিট কিনে দেবেন ভারতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি!

এমনটাই কথা ছিল। ইতিমধ্যে কথাও রেখেছেন ধোনি। শিকাগো থেকে উড়ে আসা সেই পাকিস্তানি সমর্থককে ম্যাচের টিকেট দিয়েছেন ধোনি।

কাঙ্ক্ষিত টিকিট পেয়ে পাক সমর্থক বশির আপ্লুত কণ্ঠে জানালেন, ‘এখানে এসে দেখি পাক-ভারত ম্যাচের টিকিট মূল্য ৮০০-৯০০ পাউন্ড! যা শিকাগো থেকে ম্যানচেস্টার যাতায়াত ভাড়ার সমান। কিন্তু এমন অমূল্য টিকিট বিনামূল্যেই পেয়ে গেছি। টিকিটের জন্য আমাকে কোনো কষ্টই করতে হয়নি। লাইনে দাঁড়াতে হয়নি, বুকিং দিতে হয়নি। আর এর জন্য ভারতীয় ক্রিকেটার ধোনিকে ধন্যবাদ।’

প্রশ্ন উঠতেই পারে ধোনির সঙ্গে কিভাবে এতো সুসম্পর্ক তৈরি হল এই পাকিস্তানির। জানা গেছে, ২০১১ সালের বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত ও পাকিস্তান। ম্যাচটিতে জয় পায় স্বাগতিক ভারত। সেই ম্যাচে গ্যালারিতে ছিলেন মোহাম্মদ বশির। ম্যাচ শেষে ধোনির সঙ্গে কথা হয় বশিরের। এরপর থেকেই দুজনের বন্ধুত্ব আরও গভীর হয়।

ভারতীয় খেলোয়াড়ের পয়সায় খেলা দেখতে এসে পাকিস্তানের সমর্থন দেবেন? এমন প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী পাকিস্তানের নাগরিক মোহাম্মদ বশির বলেন, আমি ক্রিকেট ভালোবাসি। ক্রিকেটের ‘শান্তির দূত’ আমি। পাক-ভারত ম্যাচে নির্দিষ্ট কোনো দলের সমর্থন না করে ভালো খেলাকেই সমর্থন জানাব।

তবে দুই দলকেই সমর্থন করার পেছনে আরেকটি যে কারণ জানা গেছে, করাচিতে জন্ম নেয়া মোহাম্মদ বশিরের স্ত্রী ভারতের হায়দরাবাদের বাসিন্দা। দুজনেই এখন শিকাগোতে থাকছেন।

দু্ই দলকেই যে সমর্থন দেবেন বশির, তার ইঙ্গিতও দিলেন এই ক্রিকেটভক্ত।

ম্যানচেস্টারের পৌঁছে ভারত ও পাকিস্তান দুই দলেরই টিম হোটেলে গিয়ে ক্রিকেটারদের সঙ্গে দেখা করেছেন বশির।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More