শোক সংবাদ-

60

লন্ডন ||

বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা যুক্তরাজ্য বিয়ানীবাজার জনকল্যান সমিতির সভাপতি ও বাংলাদেশ সেন্টারের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য জাহাঙ্গির খানের মাতা ও প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম নূরুল ইসলাম খানের সহধর্মিনী আলহাজ্ব ফুলজান খানম গত ৯ জানুয়ারী বুধবার সকাল সাতটা ত্রিশ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় উইপক্রস হাসপাতালে শেষ নিঃস্বাস ত্যাগ করেছেন ( ইন্না..লিল্লা-হি..রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়ষ হয়েছিল ৮৮বছর। তিনি দীর্ঘদিন যাবত বার্ধক্য জনিত রোগে ভোগছিলেন, মৃত্যুকালে তিনি একপুত্র, তিন কন্যা, নাতি নাতনি সহ অস্যখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ১০ জানুয়ারী বৃহস্প্রতিবার বাদ জোহর ইষ্টলন্ডন মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে তাঁকে হাইন্যাল্টের গার্ডেন অব পিসে সমাহিত করা হয়। মরহুমার মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোক করেছেন সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরী, লন্ডন্থ বাংলাদেশ মিশনের কাউন্সিলার এ্যাটাসি মোসাদ্দেক হোসেন, ঘাতক-দালল নির্মল কমিটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য আনসার আহমেদ উল্লাহ, সত্যবাণী সম্পাদক বিশিষ্ট সাংবাদিক সৈয়দ আনাছ পাশা, যুক্তরাজ্য ঘাতক-দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি সাবেক কাউন্সিলার নূরুদ্দিন আহমদ, সেক্রেটারী জামাল খান, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের কাউন্সিলার আহবাব হোসেন, যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু পরিষদের সেক্রেটারী আলিমুজ্জামান, সাংবাদি মোসলেহ উদ্দিন আহমদ, সাংবাদিক আহাদ চৌধুরী বাবু, সাংবাদিক শাহ মোস্তাফিজুর রহমান বেলাল, ওয়েষ্টলন্ডন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী হাজী আব্দুল হন্নান,বাংলাদেশ সেন্টারের সহসভাপতি মুহিবুর রহমান মুহিব, স্বদেশ-বিদেশ পত্রিকার সহসম্পাদক বাতিরুল হক সরদারন, বিবিসিএ‘র সাবেক প্রেসিডেন্ট ইয়াফর আলী, সাবেক সেরেক্রটারী শাহানুর খান প্রমুখ। শোক বার্তায় তারা মরহুমার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।
ক্যাপশনঃ লগো আছে।

মন্তব্য
Loading...