পররাষ্ট্র থেকে শিক্ষা-এই নিয়ে দ্বিতীয় দফায় পূর্ণমন্ত্রী হলেন ডা. দীপু মনি এমপি

197

পররাষ্ট্র থেকে শিক্ষা-এই নিয়ে দ্বিতীয় দফায় পূর্ণমন্ত্রী হলেন ডা. দীপু মনি এমপি। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত নতুন সরকারের মন্ত্রীসভায় স্থান পেলেন তিনি। গত ৫ বছর বাদ দিয়ে তার আগে বিগত ২০০৯-২০১৪ পর্যন্ত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন ডা. দীপু মনি। ওই সময় দেশের সমুদ্রসীমা বিজয়সহ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ অর্জন ছিল তাঁর।

আজ রবিবার বিকেলে এক প্রতিক্রিয়ায় ডা. দীপু মনি এই প্রতিবেদককে অল্পকথায় বলেন, দায়িত্ব পালনে সবার সহযোগিতা কামনা করছি। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান তিনি।

চাঁদপুর-৩ সদর-হাইমচর আসন থেকে এই নিয়ে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ডা. দীপু মনি। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তাছাড়া বিগত দশম সংসদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন তিনি।

নবম সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হয়ে আলোচনায় আসেন ডা. দীপু মনি। ওই সময় সরকার গঠিত হলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হন তিনি। এতে দেশের সমুদ্রসীমা বিজয়সহ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ অর্জন ছিল তাঁর। আওয়ামী লীগ সরকারের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করায় এতে দেশ ছাড়িয়ে বহির্বিশ্বেও আলোচিত ব্যক্তিত্বে পরিণত হন ডা. দীপু মনি।


চাঁদপুরের প্রবীণ শিক্ষাবিদ ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব জীবন কানাই চক্রবর্তী বলেন, আলোকিত পরিবারের জন্ম নেওয়া ডা. দীপু মনির হাত ধরে শিক্ষার গুণগতমান প্রসারে বাংলাদেশ আরেক ধাপ এগিয়ে যাবে।

সচেতন নাগরিক কমিটি, (সনাক) চাঁদপুর শাখা ১’র সভাপতি অধ্যক্ষ মোশারেফ হোসেন মিরণ বলেন, একজন যোগ্য ব্যক্তিকে যথার্থস্থানে বসিয়েছে সরকার।

চাঁদপুরের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক কাজী শাহাদাত বলেন, সময়ের প্রয়োজনে ডা. দীপু মনির হাত ধরে প্রযুক্তিবান্ধব শিক্ষা বিস্তার ঘটবে। এমনটা প্রত্যাশা করা যেতে পারে। দেশে ও বিদেশে উচ্চতর ডিগ্রিধারী ডা. দীপু মনি একজন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এবং আইনজীবী। শিক্ষাজীবনে দেশসেরা একজন বিতার্কিকও ছিলেন তিনি।

তাঁর বাবা ছিলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, বিশিষ্ট সাংবাদিক এবং ৫২ এর ভাষা সৈনিক এম এ ওয়াদুদ। একমাত্র ভাই ডা. জেআর ওয়াদুদ টিপু দেশের একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের রাঢ়িরচর গ্রামে তাদের পৈত্রিক বাড়ি।

এদিকে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, পৌরসভার মেয়র নাসির উদ্দিন আহম্মদ এবং সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল, ডা. দীপু মনি এমপিকে সরকারের মন্ত্রীসভায় শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় লাভ করায় অভিনন্দন জানিয়েছেন।

অন্যদিকে দীর্ঘ ৫ বছর পর আবারো ডা. দীপু মনি মন্ত্রী হওয়ায় চাঁদপুর শহরে রবিবার বিকেলে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিষ্টি বিতরণ এবং আনন্দ মিছিল করেছেন।

মন্তব্য
Loading...