শর্মিলী আহমেদকে আজীবন সম্মাননা

137

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

শর্মিলী আহমেদকে আজীবন সম্মাননা দিল স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। সোমবার রাজধানীর বসুন্ধরা সিটিতে দেশের প্রথম মাল্টি চেইন সিনেমা স্টার সিনেপ্লেক্সের ১৪ বছরপূর্তিতে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের ভালো ব্যবসা করা ১৪ টি চলচ্চিত্রকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এছাড়াও বাংলাদেশের ও বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রে অসামান্য অবদান রাখা অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদ প্রদান করা হয় আজীবন সম্মাননা। তাঁর হাতে এই এই সম্মাননা তুলে দেন তথমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও বাংলা চলচ্চিত্রের আরেক বরপুত্র ফারুক। সম্মাননা তুলে দেওয়ার সময় ফারুক শর্মিলী আহমেদকে ‘মা’ হিসেবে অভিহিত করেন। এসময় শর্মিলী আহমেদও ফারুকের মাথায় হাত বুলিয়ে আশির্বাদ করেন।

এ অভিনেত্রীকে নিয়ে একটি তথ্যচিত্রও নির্মিত হয়েছে। সম্মাননা প্রদান করার আগে অনুষ্ঠানে তথ্যচিত্রটি প্রদর্শিত হয়। শর্মিলী আহমেদ এই সম্মাননা পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। তিনি বলেন, ‘আজ এই সম্মাননা পেয়ে আমি আনন্দবোধ করছি, আবেগ আক্রান্ত হচ্ছি। যারা আমাকে সম্মানিত করলো তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’

১৯৬২ সালে রাজশাহী বেতারে অডিশন দিয়ে প্রথম অভিনয় করেন ‘তৈমুর লং নাটকের নায়িকা চরিত্রে। শর্মিলীর বাবা এই নাটক প্রযোজনা করেন। তখন শর্মিলী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন তুখোড় ছাত্রী।  তিনি সেখানে ‘বাংলা’ বিষয়ে পড়ছিলেন।

১৯৬৬ সালে পরিচালক কামাল আহমেদ শর্মিলীর  বাবাকে অনুরোধ করেন শর্মিলীকে তার ছবিতে অভিনয় করতে দেয়ার জন্য। চলচ্চিত্রের নাম ‘উজালা’। ঠিক একই সময়ে তার বাবার ব্যবসায়ী বন্ধু বজলুর রহমান ‘ঠিকানা’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে নিতে চাইলেন। এভাবেই শুরু হয়েছিল পথচলা।

শর্মিলী আহমেদের জন্ম ১৯৪৭ সালের ৮ ই মার্চ পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার বেলুড় চক গ্রামে। সেখানেই তিনি বেড়ে ওঠেন।

মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More