ফিনল্যান্ডে পালিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

183
gb

জামান সরকার, হেলসিংকি থেকেঃ

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য আর বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ফিনল্যান্ডে ঈদুল আজহা উদযাপন করেছে মুসলমানরা। গ্রীষ্মের শেষে মেঘলা আকাশ থেকে নেমে আসা গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির মাঝে ফিনল্যান্ডের প্রবাসী বাংলাদেশি মুসলমানরা সমবেত হয় ঈদের জামাতে। ইসলামী রীতি অনুযায়ী প্রবাসী বাংলাদেশিদের ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সোয়া ৯টায় রাজধানী হেলসিংকির হাকানিয়েমির পাল্লোহাল্লীতে। এতে ইমামতি করেন মো. আবদুল কুদ্দুস খান।
এছাড়া কামপ্পো স্পোর্টস মিলনায়ততে প্রবাসীদের আরেকটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৯টায় ।

ঈদের জামাত শেষে দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মার শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। ফিনল্যান্ডের সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা জামাতে দুটিতে অংশ নেন।

ফিনল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন জামাতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে ছিলেন, মোঃ আবদুস সালাম, মিজানুর রহমান, সামসুল গাজী, মিজানুর রহমান মিঠু, সপনীল, আবুল কালাম আজাদ, সেলিম মীর, মোস্তাক সরকার, আলাউদ্দিন মোহাম্মদ, সাইফুর রহমান সাইফ, জামান সরকার, মবিন মোহাম্মদ , রুবেল ভূঁইয়া, বদরুম মুনীর ফেরদৌস, আজাদ আবুল কালাম, মোঃ এম ইসলাম সোহাগ, সারমান আজাদ তাসিন, রিয়াজ সহিদ, সাহিন মোহাম্মদ, সাজ্জাদ মুন্না, নাজমুল হাসান লিটন, লাবিব, আবদুল্লাহ আল মাসুদ, ইসমত নান্নু, নাসিরউদ্দিন মজুমদার,  আবদূর রাহিম, মোঃ ইউসুফ, সবুজ খান, ইব্রাহিম খলিল, মনিরুল ইসলাম, আরিফুজ্জামান বাবু, জুয়েল, রফিকুল ইসলাম  প্রমুখ।

বরাবরের মতো এবারও বাঙালিদের ঈদ উৎসবে ছিল বিভিন্ন ধরনের দেশি-বিদেশি খাবার, একে অপরের বাড়িতে নিমন্ত্রণ খাওয়া, মাতৃভূমি বাংলাদেশে টেলিফোন করে পরিবারের ও আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও খোঁজ-খবর নেওয়া ইত্যাদি। ঈদের এ আনন্দে একে অপরের বাড়িতে নিমন্ত্রণ খাওয়ার রেওয়াজ একাধারে ৩-৪ দিন চলতে থাকে।