Bangla Newspaper

ইউক্যালিপটাস তেলের জাদুকরী গুণ !

80

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

ইউক্যালিপটাসকে বলা হয় রাক্ষুসে গাছ। এটি যেখানে আছে তার আশপাশের গাছগুলো বেঁচে থাকার পুষ্টি সহজে পায় না। কিন্তু এই গাছের তেলের আছে জাদুকরী গুণ। বিভিন্ন শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় এ তেলের ব্যবহারের নিয়ম নিয়েই আজকের টিপস—

ঠাণ্ডা-সর্দি

শ্বাসরন্ধ্রের নানা অসুবিধা দূর করে ইউক্যালিপটাসের তেল। বুকে কফ জমা, নাক দিয়ে অনবরত পানি পড়া, গলা ব্যথা, নাক বন্ধ থাকা, ব্রঙ্কাইটিস ও সাইনোসাইটিসের সমস্যায় এ তেল খুবই কাজের। সংক্রমণ, জ্বর ও ফ্লুঘটিত রোগে আরাম পেতে তেলটি ব্যবহার করুন। সর্দির ক্ষেত্রে গরম পানিতে কয়েক ফোঁটা তেল ছেড়ে দিয়ে বাষ্প নাকে টেনে নিন কিংবা সামান্য তেল নাকে ঘষে নিন। ঘুম আসবে দারুণ।

উকুন

চুলে উকুন হওয়া বড়ই অস্বস্তিকর ও লজ্জাজনক এক পরিস্থিতি। অনেক কিছু করেও এর থেকে মুক্তি মেলে না। চুলে যে তেল দিচ্ছেন তার সঙ্গে কয়েক ফোঁটা ইউক্যালিপটাস এসেনশিয়াল ওয়েল মিশিয়ে নিন। চুলে ব্যবহার করুন। খুব দ্রুত উকুনের যন্ত্রণা চলে যাবে।

চুলের যত্ন

খুশকি, চুলকানি কিংবা সোরিয়াসিসের মতো সমস্যায়ও এই তেল উপকারী। এক টেবিল চামচ নারিকেল বা জলপাই তেলে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল ওয়েল নিন। এটা ভালো করে মাথা ও চুলে ম্যাসাজ করুন। কয়েক ফোঁটা আবার সরাসরি চুলের গোড়ায় দিতে পারেন। দেখবেন, চুল দ্রুত বাড়ছে এবং সমস্যাও মিটে গেছে।

অ্যাজমা

যাঁরা এ রোগে আক্রান্ত তাঁরা ইউক্যালিপটাস তেলে ভরসা আনতে পারেন। সামান্য পরিমাণ তেল নিয়ে বুকে মালিশ করুন। এর গন্ধ শ্বাসের সঙ্গে গ্রহণ করুন। আরাম পাবেন। গলার খুসখুসে ভাবও থাকবে না। এই তেল রক্তবাহী নালিতে রক্তের সুষম প্রবাহের সৃষ্টি করে।

Comments
Loading...