নারী পুলিশ দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে-পুলিশের মহাপরিদর্শক

509
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, নারী পুলিশ সদস্যরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার মতো কঠোর দায়িত্ব অত্যন্ত দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে পালন করছে। শনিবার সন্ধ্যায় মিরপুরে পিএসসি কনভেনশন হলে বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্কের নবগঠিত কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এই কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশের আধুনিকায়ন হচ্ছে, সক্ষমতা বাড়ছে। আমরা পুলিশকে একটি জেন্ডার সংবেদনশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। ইতিমধ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন গঠন করা হয়েছে। ৭টি মেট্রোপলিটন পুলিশ ইউনিটসহ পার্বত্য রাঙ্গামাটি জেলায় ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নারী সহায়তা কেন্দ্র ও থানায় শিশু হেলপডেস্ক কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। থানাগুলোকে নারী ও শিশু বান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে। নারী পুলিশের সমন্বয়ে গঠিত ১১ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে। শান্তিরক্ষা মিশনেও তারা অনন্য অবদান রাখছে।

আইজিপি তাঁর বক্তব্যের শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুর দুরদর্শী নেতৃত্বে ১৯৭৪ সালে মাত্র ১৪ জন নারী নিয়ে পুলিশের নারীর পদযাত্রা সূচিত হয়। আজ পুলিশে নারীর সংখ্যা প্রায় এগারো সহস্রাধিক যা মোট পুলিশ সদস্যের সাড়ে সাত ভাগ।

তিনি বলেন, পুলিশে নারীরা আজ স্বমহিমায় সমুজ্জ্বল। পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্ক নারী পুলিশের পেশাদারিত্ব ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। এ সংগঠনের কর্মকর্তারা আন্তর্জাতিক সংগঠনে বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিনিধিত্ব করছে। এতে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, বিপিডব্লিউএন-এর নবগঠিত কমিটি সংগঠনটিকে আরো এগিয়ে নিতে সচেষ্ট থাকবে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ও বিপিডব্লিউএন-এর নবনির্বাচিত সভাপতি আমেনা বেগম। পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি, ঢাকাস্থ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের প্রধান, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা এবং আমন্ত্রিত অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে নারী পুলিশের কার্যক্রমের উপর ভিত্তি করে একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়। পরে বিশিষ্ট শিল্পীদের অংশগ্রহণে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আমেনা বেগমকে সভাপতি এবং স্পেশাল ব্রাঞ্চের বিশেষ পুলিশ সুপার ফরিদা ইয়াসমিনকে সাধারণ সম্পাদক করে ২০১৮-২০২০ সালের বিপিডব্লিউএন-এর ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।