সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ যুক্তরাজ্য শাখার বিবৃতি: মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলাকারীদের অবলিম্বে গ্রেফতার দাবি

205
gb
স্টাফ রিপোর্টার
বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ-বিএসপিপি’র কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ও দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান-এর উপর কুষ্টিয়ার আদালতে ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ যুক্তরাজ্য শাখা।
বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ যুক্তরাজ্য শাখার আহ্বায়ক প্রফেসর ড. কেএমএ মালিক, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক নসরুল্লাহ খান জুনায়েদ ও সদস্য সচিব ব্যারিস্টার তারিক বিন আজিজ রোববার লন্ডন সময় সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে এ হামলার বিচারবিভাগীয় তদন্ত এবং হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান।
প্রসঙ্গত, মানহানির একটি মামলায় জামিন নিতে রোববার কুষ্টিয়ার সদর জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পন করেন মাহমুদুর রহমান। বিচারক তাকে জামিন দেন। প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান আদলত থেকে বের হওয়ার মূহুর্তে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সশস্ত্র গু-াবাহিনীর অতর্কিত হামলায় মারাত্মক জখম হন। আদালত এলাকায় দীর্ঘ সময় সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা মাহমুদুর রহমানকে চারদিক থেকে ঘেরাও করে রাখে।
বিবৃতিতে পেশাজীবী নেতারা বলেন, বর্তমান ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতায় অবৈধভাবে টিকে থাকার জন্য একের পর এক বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের গুম-খুন, অপহরণ, গ্রেফতার করছে। তারই ধারবাহিকতায় সরকারের নীল-নকশার অংশ হিসেবে তাদের মদদপুস্ট বাহিনী বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী, সম্পাদক ও পেশাজীবী নেতা প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমানকে হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা চালায় বলে প্রতিয়মান হচ্ছে। এ হামলার ঘটনায় জাতি আজ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। এই ন্যাক্কারজনক হামলার দায়-দায়িত্ব বর্তমান সরকারকেই বহন করতে হবে বলে তারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, শেখ হাসিনার সরকার চুড়ান্ত ফ্যাসিবাদী রূপ ধারণ করেছে। এজন্যই তারা মাহমুদুর রহমানকে হত্যা চেষ্টা করেছে। কেবলমাত্র গণবিপ্লবের মাধ্যমে তাবেদার সরকারের বিদায়ের মাধ্যমে গণতন্ত্র ্ও আইনের শাসন পুনরুদ্ধারের আন্দোলন জোরদার করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান পেশাজীবী নেতারা।