চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে ৭ম শ্রেণির স্কুল ছাত্রকে স্বাসরোধে হত্যা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক ২

269
gb

জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার জামবাড়িয়া ইউনিয়নের ভাটাপাড়াগ্রামের একটি গম ক্ষেত থেকে শুক্রবার দুপুরে স্কুল ছাত্র রাজিব আলীর (১৩) লাশ উদ্ধারকরেছে পুলিশ। তাঁকে স্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণাকরা হচ্ছে। রাজিব ওই গ্রামের ইব্রাহীম আলীর ছেলে ও বড়গাছি সরকারী উচ্চবিদ্যালয়ের ৭ম ¤্রিেণর ছাত্র। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাজিবের দুলাভাই ও তাঁর
মাকে আটক করেছে পুলিশ। ভোলাহাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজিমউদ্দিনবলেন, গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে রাজিব বাড়ির অদুরে নিজেদের আখমাড়াই কলের ঘরে ঘুমোতে যায়। কিন্তু এরপর খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান
মেলেনি। পরে শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয়রা ওই এলাকারই একটি গমক্ষেতে রাজিবের লাশের সন্ধান পায়। খবর পেয়ে ভোলাহাট থানা পুলিশ সোয়া ১টারদিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে। উপপরিদর্শক আজিমউদ্দিন বলেন,রাজিবের
গলায় স্বাসরোধের মত আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্যচাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পূর্ব শত্রæতার জেরেপরিকল্পিতভাবে রাজিবকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হলেও এ ব্যাপারে সন্ধ্যা
পর্যন্ত নিশ্চিত কোন সূত্র পায়নি পুলিশ। তবে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্যরাজিবদের দু’ভাইবোনের মধ্যে বড় বোনের স্বামী একই গ্রামের ফোকদারিসেরছেলে রউফ (২৫) ও তার মা মাবিয়া বেগমকে (৪২) আটক করেছে পুলিশ। রউফের পিতা
ফোকদারিস পলাতক রয়েছে। স্থানীয় একাধিক সুত্র জানায়, একমাত্র বোনের স্বামীরসাথে যৌতুক নিয়ে রাজিবের পরিবারের চরম বিরোধ রয়েছে। এ ঘটনায় রাজিবেরপিতা বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে। ###