বিয়ানীবাজারে কোটি বাড়িতে ডাকাতির চেষ্টা, বৃদ্ধ মহিলাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত

4,345
gb

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি ||

বিয়ানীবাজার উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের জলঢুপ বহরগ্রাম এলাকার ‘কোটি বাড়িতে মুখোশধারী একদল ডাকাত হামলা চালিয়ে এক বৃদ্ধাকে কুপিয়ে আহত করেছে। রবিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় নুরজাহান খাতুন (৬০) নামের বৃদ্ধার শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে সিলেট প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, রোববার দিবাগত গভীর রাতে মুখোশধারী একদল ডাকাত কোটি বাড়িতে প্রবেশ করে প্রহরির ঘরের থাকা মহিলাদের মূল ভবনের দরজা খোলার নির্দেশ দেয়। তালার চাবি নেই জানিয়ে দরজা খুলতে অসম্মতি জানালে ডাকাত দল দা দিয়ে মহিলার উপর হামলা চালানোর চেষ্টা করলে তিনি চিৎকার করেন। এ সময় ডাকাত তাকে সঙ্গে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। মহিলার মাথা, হাত ও শরীরের বেশ কয়েক জায়গা জখম হয়। চি]কার শোনে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানায় উপ পরির্দশক নিযুস কান্তি দে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মহিলাকে উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় থাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে নিশ্চিত করেছেন প্রতিবেশি জাহিদ হোসেন। ঘটনা ডাকাতি জানিয়ে কোটি বাড়ির আত্মীয় উপজেলা শ্রমিক লীগের সহসভাপতি সাইদুজ্জামান টিপু বলেন, ৫/৬ জনের ডাকাতরা মুখোশ পরে ছিল। সবার হাতে ছিল দশীয় অস্ত্র। নৈশ্য প্রহরির স্ত্রী, দুই সন্তান এবং বৃদ্ধা মহিলা মুখোশ থাকায় ডাকাতদের চিনতে পারেননি। বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজালাল মুন্সি বলেন, ঘটনা জেনেছি তবে এখনও কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। এ ঘটনার পেছনে ডাকাতি না অন্য কোন বিষয় জড়িত তা তদন্ত করে দেখা হবে।