জুয়েল ও ইয়াসিনের মুক্তির দাবীতে অস্ট্রেলিয়ায় স্বেচ্ছাসেবকদলের প্রতিবাদ সভা

287
gb
সিডনি রিপোর্টারঃ
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদলের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল এবং সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলীর অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এক প্রতিবাদ সভা গত ২৮শে জানুয়ারি রবিবার সিডনিতে স্হানীয় হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়।           অনুষ্ঠানের শুরুতে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এবং আরাফাত রহমান কোকোর মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা   আয়োজিত সংগঠনের সভাপতি এএনএম মাসুমের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোঃমোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফ।স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারণ সম্পাদক  মোঃমৌহাইমেন খান মিশুর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাধারন সম্পাদক এসএম নিগার এলাহী চৌধুরী,সিনিয়র সহ সভাপতি হাবিব মোহাম্মদ জকি,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃনাসিম উদ্দিন আহম্মেদ। আর ও বক্তব্য রাখেন  বিএনপির যুগ্ম সাধারন  সম্পাদক একে এম আসুদুজ্জামান আসাদ, যুবদলের সাধারন সম্পাদক খাইরুল কবির পিন্টু,নিউসাউথ ওয়েলস বিএনপির সভাপতি ইন্জিনিয়ার মোঃকামরুল ইসলাম শামীম,বিএনপির সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, বিএনপির সহ সাধারন সম্পাদক মোঃজসিম উদ্দিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর রহমান,আব্দুল মজিদ,নিউ সাউথওয়েলস বিএনপির  সিনিয়র সহ সভাপতি আমজাদ খান,সাইমুম বিন শামস,সাহাবুর রহমান,আব্দুল করিম প্র মোঃমোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফ বলেন,সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের বিভিন্ন ধরনের বক্তব্যে পরিষ্কার হয় যে, জিয়া অরফানেজ মামলার রায় আগে থেকেই নির্ধারিত । তিনি বলেন,জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ‘যেনতেন প্রকারে রায়’  কোনভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। আর ও যদি  বেগম খালেদা জিয়াকে কেঙ্গারো কোর্টের মাধ্যমে যেনতেন প্রকারে একটা রায় দেওয়া হয় তাহলে দেশে বিদেশে ঐক্যবদ্ধভাবে কঠিনভাবে মোকাবেলা করা হবে।   এস এম নিগার এলাহী চৌধুরী বলেন,আব্দুল কাদের ভুইয়া এবং ইয়াসিন আলীর মত মেধাবী  নেতৃত্বের বিরুদ্ধ মিথ্যা সাজানো মামলা জাতি কখনোই বিশ্বাস করেনা। তাই অবিলম্বে সকল কারা বন্দিদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। সভাপতির বক্তব্যে এএনএম মাসুম বলেন,বিএনপির নেতাকর্মীদের অবৈধ হাসিনা সরকার মামলা হামলা দিয়ে তাদের ক্ষমতাকে দির্ঘায়িত করার স্বপ্ন দেখতেছে। কিন্তু আওয়ামীলিগ তাদের অতীত ভুলে গেছে ২১বছর মানুষের ভোট পায়নাই আগামীতেও সুষ্ঠ নির্বাচনে তাদের করুন পরাজয় হবে জেনেই বিএনপি নেতাদেরকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার কুকৌশলের চেষ্টা করছে।