পুলিশকে শৃঙ্খলা বাহিনী হিসেবে প্রমাণ করতে হবে: আইজিপি

668
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক || পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, পুলিশ বাহিনীকে ‘শৃঙ্খলা বাহিনী’ হিসেবে জাতির কাছে প্রমাণ করতে হবে। ‘পুলিশ সপ্তাহ-২০১৮’ এর তৃতীয় দিনে গতকাল বুধবার দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি ২০১৭ সালে প্রশংসনীয় ও ভাল কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ৩২৯ জন পুলিশ সদস্যকে আইজিপি’স ব্যাজ পরিয়ে দেন।

মাঠ পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে আইজিপি বলেন, আপনারা রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে এমনকি ধূলা-বালিতে কাজ করছেন। তা আমরা জানি। আপনাদের যথেষ্ট দেয়ার চেষ্টাও করি। কিন্তু কি করার, আমাদের তো সীমাবদ্ধতা রয়েছে। এবারের পুলিশ সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্তাব করা কয়েকটি দাবিসহ কিছু সমস্যার বিষয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইচিবাচক সাড়া দিয়েছেন।

শিল্ড প্যারেড প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া এপিবিএন দলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিযোগীতা থাকতে হবে। প্রতিযোগীতা না থাকলে কাজের মান ভালো হয় না। নিজের আইজিপি’র মেয়াদকাল শেষ প্রান্তে বলেও স্মরণ করিয়ে দেন তিনি। তার মেয়াদকালে প্যারেডে পতাকা ও কাপড় সংযোজনসহ কিছু সাফল্যের কথা তুলে ধরেন। তিনি পুলিশ বাহিনী থেকে অবসরে যাওয়ার পরও পুলিশের সফলতার কথা শুনলে খুশি হবেন বলেও অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন।

এর আগে বেলা ২টার দিকে গত বছর অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র, মাদক দ্রব্য ও চোরাচালান মালামাল উদ্ধার অভিযানে সাফল্য অর্জনকারী ইউনিট, পুলিশ সপ্তাহ ২০১৮ এর কুচকাওয়াজ ও শিল্ড প্যারেড প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলকে পুরস্কৃত করা হয়। অবৈধ আগ্মেয়াস্ত্র, মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান মালামাল উদ্ধারে কুমিল্লা জেলা প্রথম, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ দ্বিতীয় হয়। অভিযানে সাফল্য অর্জনকারী অন্যান্য ইউনিটের প্রধানদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন পুলিশ প্রধান।

পুলিশ সপ্তাহ ২০১৮ কুচকাওয়াজ প্রতিযোগিতায় প্রথম শিল্প পুলিশ দল, দ্বিতীয় এপিবিএন দল এবং তৃতীয় যৌথ মেট্রোপলিটন দল। শিল্ড প্যারেড প্রতিযোগিতায় প্রথম এপিবিএন দল, দ্বিতীয় যৌথ মেট্রোপলিটন দল এবং তৃতীয় শিল্প পুলিশ দলের নেতৃত্ব দেয়া কর্মকর্তাদের হাতেও পুরস্কার তুলে দেন আইজিপি।