ব্রিটেনে ইউনিভার্সিটি খুলবে সেপ্টেম্বর

।মো: রেজাউল করিম মৃধা//

ব্রিটেনে ইউনিভার্সিটির ছাত্র/ছাত্রীরা এক ক্লান্তিকাল অতিবাহিত করছেন।আছেন ভবিষ্যত অনিশ্চয়তায়। করোনাভাইরস মহামারিতে জীবনের উজ্জ্বলতার একটি বছর কেঁটে গেলো দু:স্চিন্তায়। তাদের এই চিন্তার সংগে জরিত প্রতিটি পরিবার। করোনাভাইরস মহামারির কারনে সারা বিশ্বের সাথে তালমিলিয়ে লক ডাউন ঘোষনা করে বৃটিশ সরকার, বন্ধ হয়ে যায় সব কিছু। সাথে সাথে ইউনিভার্সিটি গুলি। সেই বন্ধ ইউনিভার্সিটি গুলি কখন খুলবে এ নিয়ে সংস্বয় শিক্ষার্থীদের মাঝে। অবশেষে সেই সংস্বয় দূর হতে যাচ্ছে। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি গুলি হবে। এর মাঝে ইউনিভার্সিটি গুলি থেকে অন লাইনে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটি, ম্যানচেস্টার,রেডিং, কেল, আবাডিন, অক্সফোর্ড সহ বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি তে এক একটি বিষয়ের উপর অন লাইল কোর্স করলে ও ডুরহ্যাম ইউনিভার্সিটি সব গুলি ক্লাস অন লাইনে শুরু করেছে। শিক্ষীর্থীরা সমস্যা জর্জরিত ইউনিভার্সিটি ফিস নিয়ে। বৃটিশ ছাত্র/ছাত্রী এবং ব্রিটেনে অবস্থান রত ছাত্র/ ছাত্রীদের বাৎসরিক ফিস £৯২৫০ পাউন্ড। কিন্তু বাহিরের দেশ থেকে আসা ছাত্র/ ছাত্রীদের ফিস আরো বেশী। যদিও ব্রিটেনের ছাত্র/ছাত্রীরা সরকারী স্টুডেন লোন পেয়ে থাকেন। কিন্তু বাহিরের দেশ থেকে আসা শিক্ষার্থীদের নিজেদের পে করতে হয়। শিক্ষার্থীদের একবছরের শিক্ষা বছর লস এবং টিউশন ফি ফিরে পাওয়ার দাবিতে অন লাইন ক্যাম্পেইনে প্রায় ৩৩০০০০ স্বাক্ষর সহ পারলামেন্টে জমা দেওয়া হয়েছে। (২০১৮–২০১৯) বর্ষে ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি থেকে ২.৩৮ মিলিয়ন হাইয়ার এডুকেশন গ্রজুয়েট করেছেন। ১.৮ মিলিয়ন অফ দেম আন্ডার গ্রেজুয়েশন করেছেন। ৪৮০.০০০ বাহিরের দেশের স্টুডেন্টরা হাইয়ার গ্রেজুয়েশন করেছেন। ৫৪১.২৪০ বি কাম আন্ডার গ্রেজুয়েট । এর মধ্য থেকে শতকরা মাত্র ১৮ পার্সেন্ট স্টুডেন্ড কাজ করছেন। তবে এই করোনাভাইরস মহামারি তে ফাইন্যাল এয়ারের মেডিক্যাল স্টুডেন্টরা NHS এর কী ওয়ারকার হিসাবে কাজে যোগদান করেছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন