বলিউড তারকাদের চোখের জলে বিদায় শশী

461
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:

ভারতীয় চলচ্চিত্রের আকাশে অস্তমিত শশী। শূন্যতা ঢেকে দিয়েছে বলিউডের একটা অধ্যায়কে।

এই শূন্যতার যোগ্য সঙ্গত যেন এদিন দিয়েছে মুম্বাইয়ের মেঘলা আকাশ, বিদায়ের দিনের বৃষ্টি। কারোর সতীর্থ তো কারোর সঙ্গে আত্মার যোগ ছিল তাঁর। কেউ কেবলমাত্র অভিনেতা শশী কাপুরকেই প্রাণ ঢেলে শ্রদ্ধা করে গিয়েছে, সেক্ষেত্রে সম্পর্ক গড়ে উঠেছে অভিনয় সূত্রেই।

এরকম অনেক সম্পর্ককে সামনে রেখেই কাপুর পরিবারে স্বনামধন্য় সদস্য শশী কাপুরকে চোখের জলে শেষ শ্রদ্ধা জানায় বলিউড। শবদেহ পৃথ্বীরাজ থিয়েটারে খানিকক্ষণ শায়িত রাখার পর তাঁকে অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ার উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়। শেষকৃত্যে উপস্থিত ছিলেন শাহরুখ থেকে অমিতাভ বচ্চন , উপস্থিত ছিলেন কাপুর পরিবারের সদস্যরাও।

রাজ কাপুরের ছোট ভাই তথা পৃথ্বীরাজ কাপুরের কনিষ্ঠ সন্তান শশী কাপুরের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় সান্তাক্রুজের ক্রিমেটোরিয়ামে। শেষকৃত্যে হাজির ছিলেন শশী কাপুরের সন্তান কুণাল সমেত কাপুর পরিবারের সদস্যরা। হাজির ছিলেন বলিউডের বহু বিখ্যাত ব্যাক্তিত্ব।

‘মেরে পাস মা হ্যায়’, ‘দিওয়ার’ ছবির এই বিখ্যাত সংলাপ আর স্ক্রিন জুড়ে তখন অমিতাভ বচ্চন আর শশী কাপুর। সেই দৃশ্যেকে মনে রাখলে , এদিনের ছবিটা সত্যিই মন ভারাক্রান্ত করার মত। শশী কাপুরের শেষকৃত্যের সকালে হাজির ছিলেন অমিতাভ বচ্চন।

মুম্বাইয়ের কোকিলবেন হাসপাতাল থেকে শবদেহ নিয়ে যাওয়ার সময়েও শশী কাপুরের শুভাকাঙ্খীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। সকালেই হাসপাতাল থেকে শেষকৃত্যের উদ্দেশে রওনা হয় শশী কাপুরের শবদেহ। আর তার আগে হাসপাতালে পৌঁছান করিশমা কাপুর।

সম্পর্কে তিনি কারিনার দাদু হন। কাপুর পরিবারের বড্ড আদরের সদস্য ছিলেন শশী কাপুর। শুধু তাই নয়, সাইফ আলি খানেরও প্রাণের নায়ক ছিলেন তিনি। একবার সিনেমার শশী কাপুর মার খাচ্ছেন দেখে, ভিলনকে মারতে উদ্যত হন ছোট্ট সাইফ আলি খান। আর এহেন পছন্দের কিংবদন্তী নায়ককে শেষ বারের মতো দেখতে সাইফ-কারিনা দুজনেই ছুটে যান হাসপাতালে।

শশী কাপুরের মৃত্য়ুর খবর জানতেই রাতে কোকিলাবেন হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা হন বিগ বি অমিতাভ বচ্চন। সঙ্গে ছিলেন ছেলেন অভিষেক, ও ঐশ্বরিয়া। সম্পর্কে তাঁর আত্মীয় রণধীর কাপুরকে নিয়ে গতরাতেই সোজা কোকিলবেন হাসপাতালে পৌছান অভিনেতা রণবীর কাপুর।