আমাদের করোনা রোগী শনাক্তের সুযোগ নেই: ঢামেক চিকিৎসক

13
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

এলার্জিজনিত সমস্যা নিয়ে চিকিৎসার জন্য সরকারি-বেসরকারি একাধিক হাসপাতালে ঘুরছেন বয়স তিরিশের এক যুবক। তার দাবি কোথাও মেলেনি সেবা বরং পরামর্শ দেয়া হয়েছে বাসায় থাকার। অভিযোগ রয়েছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা চেষ্টা করেও মেলে না আইইডিসিআর এর হটলাইন সেবা।

ভুক্তভোগী ওই যুবক বলেন, আমার বাসার পাশে মেট্রোপলিটন হাসপাতালের পাশে। তাদের কাছে গেলে বলে সরকারি মেডিকেলে যেতে হবে। সেখানে গেলে বলে আপাতত এই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। এ জন্য আলাদা ইউনিট খোলা হয়েছে।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এসব অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে খোদ ঢাকা মেডিকেলের চিকিৎসকের কণ্ঠে। ঠিকমতো সেবা দিতে না পারার পেছনের যুক্তিও তুলে ধরছেন তিনি।

তিনি বলেন, আমাদের সীমাবদ্ধতা প্রকট। কিটের সীমাবদ্ধতা। আমাদের ব্যক্তিগত রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী নেই। আমাদের কাছে করোনা রোগী শনাক্তের মতো সুযোগ নেই। আর শনাক্ত না করেতো বলতেও পারবো না করোনা আছে কি নেই।

তবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান বলেন, ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে না কোনও রোগীকেই।

ঢামেকের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, কাউকে চিকিৎসা না দিয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে এটাতো হতেই পারে না। আমরা বরং চাচ্ছি একজন মানুষও যেন চিকিৎসাবিহীন না যায়।

করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণে সরকার নির্দেশিত হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসকের সুরক্ষা নিশ্চিতে পর্যাপ্ত পিপিই মজুদ রয়েছে বলেও দাবি তার।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন