অশ্লীল শব্দ লেখার অভিযোগে ৮৮ ছাত্রীকে এ কোন শাস্তি!

258

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:

প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অশ্লীল শব্দ লেখার অভিযোগে একসঙ্গে ৮৮ ছাত্রীকে পোশাক খুলিয়ে শাস্তি দিলেন স্কুলেরই তিন শিক্ষিকা। অরুণাচলের কস্তুরবা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ের এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকাদেরা বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় এফআইআর করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, অরুণাচলের পাপুম পারের তানি হাপার এই স্কুলটিতে গত ২৩ নভেম্বর এই কদর্য ঘটনাটি ঘটেছে। তবে, ঘটনাটি জানাজানি হয় আরও চার দিন পর, গত ২৭ নভেম্বর। ‘অল সাগালি স্টুডেন্ট ইউনিয়ন’ ওই ছাত্রীদের হয়ে থানায় এফআইআর দায়েরের পর। ওই অভিযোগ থেকেই জানা গিয়েছে, ক্লাস সিক্স ও সেভেনের মেয়েদের এ ভাবে পোশাক খুলিয়ে শাস্তি দেওয়া হয়েছে।


 


এই ঘটনায় যাঁদের বিরুদ্ধে অভব্য আচরণের অভিযোগ উঠেছে তাঁরা হলেন স্কুলের দুই সহশিক্ষিকা এবং এক জুনিয়র শিক্ষিকা। ঘটনার শিকার ছাত্রীরা জানায়, ক্লাসের অন্যদের সামনে দাঁড় করিয়ে তাদের নগ্ন হতে বাধ্য করেন তিন শিক্ষিকা। প্রধান শিক্ষিকার উদ্দেশে অশ্লীল শব্দ লেখা কাগজের টুকরোটি খুঁজে বের করতেই নাকি এ ভাবে পোশাক খোলানো হয়েছে। পাপুম পারের পুলিশ সুপার তুমে আমাও বুধবার কস্তুরবা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ের তিন শিক্ষিকার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের খবর নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, মামলাটি মহিলা পুলিশ থানায় পাঠানো হয়েছে। ঘটনার শিকার ওই ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে, মামলার বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে পুলিশ।


 


এদিকে, এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে অরুণাচল প্রদেশ কংগ্রেস। দলের তরফে এক বিবৃতি জানানো হয়েছে, এ ধরনের শাস্তি সমর্থন যোগ্য নয়। ছাত্রীদের মধ্যে এই ঘটনার নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। কংগ্রেসের বক্তব্য, এ ভাবে কাউকে শোধরানো যায়া না। শিক্ষিকারা যা করেছেন, তা শিশু অধিকার লঙ্ঘনের শামিল। শিশু নিগ্রহের মধ্যেই পড়ে। শিক্ষিকাদের কাছ থেকে এমন আচরণ অনভিপ্রেত। স্কুল কর্তৃপক্ষ যদিও মুখে কুলুপ এঁটেছে।