যশোরে ভ্রণ হত্যার অভিযোগে স্বামী সহ ৪জনের বিরুদ্ধে মামলা

18
gb

ইয়ানূর রহমান :

যশোরে ভ্রণ হত্যার অভিযোগে স্বামীসহ চারজনকে আসামি করে আদালতে একটি মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার যশোর মুড়োলির আবুল বাশারের মেয়ে রাবেয়া খাতুন এ মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মঞ্জুরুল ইসলাম অভিযোগটি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন। আসামিরা হলো বাঘারপাড়ার হুলিহট্ট গ্রামের আলতাপ হোসেনের ছেলে ফয়সাল হোসেন, মেয়ে শাহিনা বেগম, স্ত্রী রেক্সনা খাতুন ও শহরের নীলগঞ্জের মৃত মোন্তাজ শেখের ছেলে ডাক্তার মহিদুল ইসলাম। মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ২ জুলাই আসমি ফয়সাল হোসেন রাবেয়া খাতুনকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে স্বামীর বাড়ির লোকজন তার উপর নির্যাতন করে আসছিল। ২০১৯ সালের ১৯ আগস্ট আল্টাসনোগ্রাফি করে রাবেয়া নিশ্চিত হয় তিনি অন্তসত্তা। এ বিষয়টি তার স্বামীর বাড়ির লোকজন জনতে পেরে গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য তাকে চাপ দিতে থাকে। ওই বছরের ২১ অক্টোবর তার স্বামী-শাশুড়ী ও ননদ ধরে তাকে মারপিট করলে রক্ষরণ শুরু হয়। এরপর নীলগঞ্জেরে ডাক্তার মনিরুল ইসলামের কাছে এনে চিকিৎসার নামে গর্ভপাত করানোর ঔষুধ খাওয়ায়ে সন্তান নষ্ট করে ফেলায়। পরে শহরের একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা শেষে তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন।#

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন