গাইবান্ধায় সংবর্ধিত হলেন ৩০ বীর মুক্তিযোদ্ধা

84
gb

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি //

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সমকাল সুহৃদ সমাবেশ গাইবান্ধা ইউনিটের উদ্যোগে আজ ২৩ নভেম্বর শনিবার গাইবান্ধা পৌর শহীদ মিনার চত্বরে আয়োজন করা হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের। সকালে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরু করা হয়। পরে প্রয়াত বীর ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। প্রারম্ভে স্বাধীনতার কবিতা পাঠ করেন কবি সোহেল রানা। সমকাল সুহৃদ সমাবেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সহযোগিতায় ও সুহৃদ সমাবেশ গাইবান্ধা জেলা শাখা আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট শাহ্ধসঢ়; মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন, সমকালের সহকারী সম্পাদক ও সমকাল সুহৃদ সমাবেশ কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী সিরাজুল ইসলাম আবেদ, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. মাহমুদুল হক শাহজাদা প্রমূখ। সংগঠনের সভাপতি অঞ্জলী রানী দেবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওয়াশিকার মো. ইকবাল মাজু, সুহৃদ গাইবান্ধা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা মো. মকছুদার রহমান শাহান, মুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসেন, সুহৃদ গাইবান্ধা কমিটির উপদেষ্টা আফরোজা বেগম লুপু, ফুলছড়ি শাখা সুহৃদের সভাপতি মো. ইসমাইল হোসেন, সাঘাটা উপজেলা সুহৃদের আহবায়ক কবি জাহাঙ্গীর আলম আজাদ, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সভাপতি কবি কঙ্কন সরকার, সাদুল্যাপুর উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি প্রভাষক আব্দুল জলিল সরকার, সরকারি টেকনিক্যাল কলেজ কমিটির পক্ষে রাকিবুল হাসান, সমকালের গাইবান্ধা প্রতিনিধি উজ্জল চক্রবর্ত্তী, সাদল্লাপুর প্রতিনিধি শাহজাহান সোহেল, সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধি এ মান্নান আকন্দ প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের অর্থ সম্পাদক শাহজাদী হাবীবা সুলতানা পলাশ ও সরকারি কলেজ শাখা সুহৃদের সাধারণ সম্পাদক সম্পা দেব। অনুষ্ঠানে জেলার ৭ উপজেলার ৩০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালেও অনুরূপ এক অনুষ্ঠানে ২০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধারা এদেশ স্বাধীন করেছেন। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা দানের মাধ্যমে তাদের বীরত্বের প্রতি সম্মান জানানো হয়। তিনি সমকাল সুহৃদ সমাবেশের এ ধরণের সম্মাননা আয়োজনের প্রশংসা করে ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত রাখার আহবান জানান।