ড. তানভীর প্রথম বাংলাদেশী হিসাবে ‘আইএফওএএম’ গ্লোবাল অর্গানিক অ্যাম্বাসেডর মনোনীত

1,673
gb

GBnews24.com ||

‘আইএফওএএম গ্লোবাল অর্গানিক অ্যাম্বাসেডর’ হিসেবে প্রথম বাংলাদেশী হিসাবে মনোনীত হলেন, ড. শেখ তানভীর হোসেন।

১৩ নভেম্বর ভারতের দিল্লিতে অনুষ্ঠিত আইএফওএএম সাধারণ পরিষদে জার্মানির আন্তর্জাতিক ফেডারেশন অব জৈব কৃষি আন্দোলন (আইএফওএএম) তানভীর হোসেনকে এ মনোনয়ন দিয়েছে।

ড. শেখ তানভীর হোসেন প্রথম ও একমাত্র বাংলাদেশী যিনি আইএফওএএম-এশিয়ার ভাইস-প্রেসিডেন্ট, ‘অর্গানিক ফার্মিং ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড’ এবং এবার  ‘(আইএফওএএম) অর্গানিক অ্যাম্বাসেডর” হিসেবে মনোনীত হলেন।

‘আইএফওএএম’ সাধারণ পরিষদে বিশ্বব্যাপী ‘আইএফওএএম গ্লোবাল অর্গানিক এ্যাম্বসডোর’ হওয়ার জন্য বিশ্বব্যাপী ১৭ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচিত করেছে এবং আইফোএম- অর্গানিক ইন্টারন্যাশনালের ব্যাজ পরতে এবং গ্লোবাল, আঞ্চলিক এবং জাতীয় গুরুত্বের ঘটনাবলীর ক্ষেত্রে ‘ব্র্যান্ড এজেন্ট’ হিসেবে কাজ করার মনোনয়ন দিয়েছে।

ড. তানভীর এখন জাপানের টোকিওতে অবস্থিত আন্তঃ-সরকারি সংস্থা ‘এশিয়ান প্রোডাকটিভিটি অর্গানাইজেশনে (এপিও)’ কৃষি বিভাগের প্রোগ্রাম অফিসার হিসেবে কাজ করছেন।

প্রসঙ্গত, এপিও, এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বিশ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে কাজ করছে, যা উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির মাধ্যমে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোর টেকসই আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখছে।

এছাড়া ড. তানভীর ২০১৫ সাল থেকে আইএফওএএম-এশিয়ার ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে এবং দক্ষিণ কোরিয়া-তে ২০১১ সালে “অর্গানিক ফার্মিং ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড (ওফিয়া)” এর প্রথম গ্র্যান্ড পুরস্কার লাভ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী জৈব কৃষি বিষয়ে বার্তা প্রেরণ এবং প্রতিনিধিত্ব ও প্রসারিত করার জন্য, আইএফওএএম তিন বছর আগে এডভোকেসী এ্যাম্বসডোরদের সাথে কাজ করতে যাত্রা শুরু করে।

‘আইএফওএএম এডভোকেসী এ্যাম্বাসেডর’ এমন ব্যক্তি যারা আইএফওএএম এর জৈব কার্যাবলির নীতিমালা এবং লক্ষ্য প্রসারিত এবং আইএফওএএম এডভোকেসী প্রোগ্রামের জন্য স্বেচ্ছাসেবেক হিসেবে কাজ করে।

বিশ্বব্যাপী উচ্চ স্তরের ইভেন্টে আইএফওএএম’র জৈব কার্যাবলির প্রতিনিধিত্ব করে এমন ব্যক্তি এ্যাম্বসডোর হিসেবে মনোনীত হয়, যারা ব্যাপকভাবে স্বীকৃত এবং জৈব নীতির সাথে সম্পর্কিত সততা এবং উৎসাহী, অনুপ্রেরণামূলক এবং যত্নশীল ব্যক্তি।