মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিগুলোর ঐক্যের পথ রাখতে হবে উন্মুক্ত : মোস্তফা

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সমুন্নত রাখতে হলে বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে আক্তারুজ্জামান চৌধুরী বাবুদের জীবনি জানাতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্বপ্ন-সাধ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে কোনো গণ্ডির মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিগুলোর ঐক্যের পথ রাখতে হবে উন্মুক্ত। সজাগ থাকতে হবে- আমাদের কোনো ভুলের জন্য জাতি যেন দ্বিধা-বিভক্ত হয়ে না পড়ে।মঙ্গলবার তোপখানার বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর অন্যতম সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আক্তারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের অন্যতম জাতীয় ঐতিহ্য, অহংকার এবং গর্ব। কিন্তু দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, যে চেতনা নিয়ে জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়েেীছল সেই চেতনা আজ প্রায় বিলুপ্তির পথে। দুর্নীতিবাজরা সেই চেতনাকে পদদলীত করছে। আর এই দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী লড়াইয়ে সফলতার কোন বিকল্প নাই।মুক্তিযোদ্ধাদের বিভক্তির ব্যাপারে তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর মুক্তিযোদ্ধারা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে থাকাটাই স্বাভাবিক। যেখানেই থাকুক না কেন সবাই দেশপ্রেমিক। দলীয় কারণে তাদের বিতর্কিত করা সমীচীন নয়। মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানকে স্বীকার করে না, শহীদদের প্রতি অশ্রদ্ধা করে, পতাকাকে অসম্মান করে। সেই সব শক্তিকে প্রতিহত করা দেশের প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব।তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশ গঠনে আকআতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর অবদান জাতি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। বাবু ভাই তার রাজনীতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনােকে ধারন করতেন। আমৃত্যু তিনি দেশ-জাতি ও জনগনের জন্য কাজ করে গেছেন।সংগঠনের সভাপতি এম. এ. জলিলের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর অন্যতম সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু।আলোচনায় অংশ গ্রহন করে মুক্তিযোদ্ধা আইনজীবী পরিষদের সভাপতি এডভোকেট শামসুল আলম দুদু, সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক নিম চন্দ্র ভৌমিক, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, সরকারের ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ আবুল হাশেম, ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগ নেতা আ স ম মোস্তফা কামাল, ন্যাপ ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলু প্রমুখ।