আশায় —দুরাশা

81
gb

-রাজলক্ষ্মী মৌসুমী 
>
> সবুজ গালিচায় ঘাসের স্নিগ্ধ মনোরম প্রভাতের
> প্রাণবন্ত সূর্যস্নাত   আলোয়,
> আমি প্রতিক্ষণে আমার সুপ্ত বাসনাটুকু তোমার পদতলে হৃদপদ্মের কম্পন ধ্বনি উৎসর্গ করি,
> কিন্তু হায়— তুমি অবিচল, কী যে ভাবো আড় নয়নে,
> আমি বার বার তোমার  বুকের পাঁজরে কড়া নেড়ে
> ক্লান্ত হয়ে ফিবে আসি কষ্টনীড়ে।
> অবেলায় , কালিমায়  আমার সব আশা চুর্ণ হয়ে যায়।
> তোমার হৃদয়ের চৌকাঠ  ডিঙ্গিয়ে আর হয়তো
> তৃষ্ণার্ত  বলিদান হবে নাকো কোনদিন।
>
> জানি সখা, প্রদীপ নেভার আগেই তুমি
> হয়তো কোন এক সময় তোমার প্রাণদীপ্ত চঞ্চল মন
> সুধাবে আমায়,—-  তখন আমি হতবাক নয়নে——দেখবো  অপলক নয়নে——-।
> কী জানি বাসনা আমার আর জাগবে কিনা প্রাণে।
> হয়তো সে সময়  রবি আর ঊষার প্রেমের ভাটা পড়ে
> হারিয়ে যাবে কোন কিনারায়।
> নিরাশায় বাঁধি কিভাবে  আমার প্রাণের খেলাঘর।
>
> সখা অন্য এক মনের আয়নায় ডুব সাগরে
> মত্ত যখন তুমি —- আর এদিকে আমি বাসনা টুকু  লয়ে
> চৈত্রের তাপদহের  মত চৌচির  প্রায় আমার হৃদকমল।
> উষা লগনের সূর্যের ধীর গতিতে প্রজ্জ্বলিত আভায়,
> নরম সবুজ গালিঢায় দু’জনার জমানো বহু কথা,
> অনেক না বলা কথা, স্মৃতির পাতায়
> জীর্ন হয়ে যাবে একদিন।
> প্রৌঢ়ত্বের ভার বইবো যখন রোমন্থণ করে
> মিটাবো মনের সাধ।
> আর পর জনমের তরে থাকবো প্রতীক্ষায়।
>

gb

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More