সাতক্ষীরায় বিকাশ এজেন্টদের ৪ কোটি টাকা ফেরত পাওয়ার দাবি

38
gb

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার বিকাশ পরিবেশক ওমর ফারুক কর্তৃক জেলার তিন শতাধিক বিকাশ এজেন্টদের কাছ থেকে নেয়া ৪ কোটি টাকা পরিশোধ না হওয়া পর্যন্ত জেলায় কোন বিকাশ পরিবেশকদের ব্যবসা পরিচালনা করতে দেওয়া হবে না।
সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা টেলিকম ও মোবাইল ব্যাংকিং মালিক সমিতির সভাপতি কাজী আকতার হোসেন জানান,সাতক্ষীরা জেলার সাত উপজেলায় তিন শতাধিক বিকাশ এজেন্টদের কাছ থেকে প্রায় ৪ কোটি টাকা নিয়ে গত ১৪ জুলাই উধাও হয়ে যায় পরিবেশক ফারুক। বিকাশ এজেন্টরা তাদের পরিশ্রমের টাকা খুইয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে।
এঘটনায় আদালতে তিনটি মামলাও চলমান রয়েছে। এবিষয়ে বিকাশের খুলনা জোনাল অফিসসহ ঢাকা অফিসকে অবহিত করা হলে, তারা টাকা উদ্ধারে আশ্বাস দেন। পরবর্তীতে একটি করে ফরম এজেন্টদের কাছে পাঠিয়ে সেখানে স্বাক্ষর করতে বললে ওই ফোরামের লিখিত ভাষ্যগুলো ক্ষতিগ্রস্থ এজেন্টের স্বার্থের পরিপন্থি হওয়ায় এতে কেউ স্বাক্ষর করেননি।
তিনি বলেন, বিকাশ কোম্পানি এজেন্টদের টাকার কোন সমাধান না করে সম্প্রতি সাতক্ষীরায় পরিবেশক নিয়োগ দিয়েছেন। পরিবেশক নিয়োগে কোন আপত্তি নেই। কিন্তু এজেন্টদের টাকা পরিশোধ বা এর কোন সমাধান না করা পর্যন্ত পরিবেশকদের সাতক্ষীরায় কোন ব্যবসা পরিচালনা করতে দেওয়া হবে না। এজেন্টরা তাদের কষ্টেউপার্জিত টাকা হারিয়ে প্রায় নিঃশ্ব হয়ে পড়েছেন। সেদিকে খেয়াল না করে এখানে বিকাশ ব্যবসা পরিচালনা করবে তা হবে না। আর এনিয়ে সাতক্ষীরায় যদি কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে তার দায়ভার বিকাশ কোম্পানিকেই বহন করতে হবে বলে এজেন্টদের পক্ষে তিনি হুশিয়ারী দেন।
যদি কোন ধরনের অনাঙ্খিত ঘটনা ঘটে তার দায়িত্ব সাতক্ষীরা জেলা টেলিকম ও মোবাইল ব্যাংকিং মালিক সমিতি বহন করবে না বলে জানিয়ে তিনি বলেন, টাকা পরিশোধ না হওয়া পর্যন্ত সাতক্ষীরায় কোন বিকাশ পরিবেশকদের ব্যবসা পরিচালনা করতে দেওয়া হবে না। সর্বশক্তি দিয়ে তা প্রতিহত করা হবে।
তিনি আরও বলেন,ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের কোন সমাধান না করে পরিবেশক নিয়োগ দেওয়ার প্রতিবাদে আগামী রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সাতক্ষীরায় বিকাশের সকল লেনদেন (পারশোনাল ও এজেন্ট) বন্ধ থাকবে। যদি এতেও কোন সুষ্ঠু সমাধান না হয় তাহলে পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচি গ্রহণে তারা বাধ্য হবেন। তিনি বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এক সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলার বিভিন্ন স্থানের অর্ধশতাধিক এজেন্টরা উপস্থিত ছিলেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More