ডেঙ্গু মোকাবিলায় ঢাকা উত্তরের দুই বিভাগের ছুটি বাতিল

51
gb

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশা নিধন না হওয়া পর্যন্ত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ও মশক নিধন বিভাগের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। আসছে ঈদুল আজহায়ও তাদের অফিস করতে হবে।

শুক্রবার রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে ডিএনসিসির উদ্যোগে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়াবিষয়ক জনসচেতনতামূলক র‌্যালিতে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম এ কথা জানান।

মেয়র আতিক বলেন, মশক নিধনে যারা কাজ করছেন, তাদের সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। আগামী ঈদেও তাদের ছুটি বাতিল থাকবে। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

ঢাকাবাসীর প্রতি মেয়র বলেন, এডিস মশা নর্দমায় জন্ম নেয় না। এরা বাড়িতেই জন্ম নেয়। আপনার-আমার জমিয়ে রাখা পানিতেই এডিস মশা জন্ম নেয়। এটিকে বলা হয় গৃহপালিত মশা। কাজেই এটিকে প্রতিরোধ করতে হলে সব পরিবারকে এগিয়ে আসতে হবে। কোথাও যাতে পানি জমতে না পারে এবং এডিস মশা জন্ম না নিতে পারে।

তিনি বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির মশক নিধনকর্মী ও সুপারভাইজাররা নিয়মিত কাজ করছে। প্রতিটি এলাকার মশক নিধনকর্মী, সুপারভাইজার এবং মনিটরিং কর্মকর্তার নাম ও মোবাইল নম্বর ডিএনসিসির ওয়েবসাইটে দেয়া আছে। যে কেউ তাদের ফোন করে এ বিষয়ে জানাতে পারবেন। সেই সঙ্গে জবাবদিহির আওতায় আনা যাবে।

ডেঙ্গু নিধনে এ মুহূর্তে সবচেয়ে জরুরি জনসচেতনতা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, বাসায় কোনোভাবেই পানি জমিয়ে রাখা যাবে না। পরিষ্কার পানিও তিন দিন জমিয়ে রাখলে এডিস মশার জন্ম হয়। জমে থাকা স্বচ্ছ পানি নিজ দায়িত্বে পরিষ্কার করতে হবে।

র‌্যালিতে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানসহ ডিএনসিসি এলাকার কাউন্সিলর, নেতাকর্মী, চলচ্চিত্র, টেলিভিশন, ক্রীড়াসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More